রাজীব গান্ধীর হত্যাকারীদের মুক্তির বিরোধীতা করে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ কেন্দ্র

রাজীব গান্ধীর হত্যাকারীদের মুক্তির বিরোধিতা করে সুপ্রিমকোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার পথে কেন্দ্র।

এর আগে নলিনী শ্রীহরন সহ রাজীব গান্ধী হত্যা মামলায় দোষী সব্যস্ত সাতজনকে মুক্তি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল তামিলনাড়ু সরকার। জয়ললিতার এই রাজনৈতিক পদক্ষেপ লোকসভা ভোটের আগে কেন্দ্র আর তামিলনাড়ুর দ্বন্ধকে উসকে দিল। তবে এই সিদ্ধান্তের সঙ্গেই মাস্টারস্ট্রোকটা খেলে দিয়েছেন জয়ললিতা। তিনি এই সিদ্ধান্তে সাড়া দেওয়ার সময় জন্য কেন্দ্রকে তিনদিন সময় দিয়েছেন। এই তিনদিনে কেন্দ্রের তরফ থেকে কোনও রকম প্রতিক্রিয়া জানানো না হলে জয়ললিতা তাঁর ক্ষমতার ব্যবহার করে এই সাতজনকে মুক্তি দেবেন বলে ঘোষণা করেছেন।

ইস্তফা দিলেন ডিএমকের মন্ত্রীরা

কালই ডিএমকে সুপ্রিমো করুণানিধি জানিয়ে ফিয়েছেন সমর্থন প্রত্যাহারের কথা। গত কাল রাতেই টি আর বালুর নেতৃত্বে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করে মন্ত্রিসভা থেকে ইস্তফা এবং সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি দিয়ে এসেছেন। আজ ইস্তফা দেবেন পাঁচ মন্ত্রী। একই সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর কাছে ইস্তফা দেবেন দলের মোট ১৮ সাংসদ। মঙ্গলবার রাতে রাষ্ট্রপতি ভবনে প্রণব মুখোপাধ্যায়কে সমর্থন প্রত্যাহারের চিঠি দেন বালু। কংগ্রেসের কোর গ্রুপ মঙ্গলবার গভীর রাত পর্যন্ত বৈঠক করে। সূত্রের খবর, শ্রীলঙ্কা ইস্যুতে সংসদে প্রস্তাব আনার জন্য খসড়া তৈরি করছে কংগ্রেস। কিন্তু তাতে করুণানিধির দাবি মানা হবে কি না, তা জানা যায়নি।