জোর করে গর্ভপাতের পর বিয়ে করতে অস্বীকার, আত্মহত্যা টেলি অভিনেত্রীর

জোর সোরগোল শুরু হয়েছে 

Edited By: জয়িতা বসু | Updated By: Jun 2, 2020, 03:36 PM IST
জোর করে গর্ভপাতের পর বিয়ে করতে অস্বীকার, আত্মহত্যা টেলি অভিনেত্রীর

নিজস্ব প্রতিবেদন : ​ফের আত্মহত্যা টেলি অভিনেত্রীর। সম্পর্কে প্রতারিত হয়ে এবার আত্মহত্যা করলেন কন্নড় অভিনেত্রী চন্দনা।

রিপোর্টে প্রকাশ, মৃত্যুর দৃশ্য নিজের মোবাইলে শ্যুট করেন চন্দনা। এরপর সেই ভিডিয়ো বন্ধুকে পাঠিয়ে দেন। বন্ধুর পাশাপাশি নিজের বাবা-মাকেও ওই ভিডিয়ো পাঠান চন্দনা। কিন্তু ভিডিয়ো পেয়ে যতক্ষণে তাঁর কাছে পৌঁছে, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়, ততক্ষণে শেষ হয়ে যায় চন্দনার জীবন।

জানা যাচ্ছে, কন্নড় অভিনেত্রী চন্দনা বেশ কয়েক বছর ধরে দিনেশ নামে এক যুবকের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। বছর ২৯-এর চন্দনা যাতে দিনেশের কাছ থেকে সরে আসেন, তার জন্য অভিনেত্রীর বাবা-মা বার বার উদ্যোগী হন কিন্তু  প্রত্যেকবারই তাঁদের চেষ্টা বিফলে যায়। দিনেশ এর আগেও বেশ কয়েকজনের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে তাঁদের প্রতারিত করেছেন, চন্দনাকে বার বার বোঝানো সত্ত্বেও তিনি মানতে পারেননি। ফলে বাবা-মায়ের নিষেধ সত্ত্বেও দিনেশের সঙ্গে সম্পর্ক অটুট তাকে চন্দনার।

এসবের মাঝে হঠাত করেই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন চন্দনা কিন্তু জোর করে তাঁকে গর্ভপাত করানো হয় বলে অভিযোগ। দিনেশই তাঁকে বাধ্য করেন গর্ভপাতের জন্য। গর্ভপাতের পর চন্দনাকে বিয়ে করতেও অস্বীকার করেন দিনেশ। নিজের সুইসাইড ভিডিয়োতে এমনই দাবি করেন অভিনেত্রী। চন্দনাকে বিয়ে করবেন না বলে জানানোর পরই তিনি আর সহ্য করতে পারেননি। বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেন বলে খবর।

চন্দনার মৃত্যুর পর পুলিসে অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিস দিনেশের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে।

সম্প্রতি প্রেক্ষা মেহতা নামে টেলিভিশনের আরও এক অভিনেত্রী আত্মহত্যা করেন। ভাঙা স্বপ্ন নিয়ে বেঁচে থাকা যায় না বলে নিজের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেলে স্টেটাস দেন প্রেক্ষা। যা প্রকাশ্যে আসার পরই শুরু হয় জোর শোরগোল।