৫৪তে এসে বিবেক মেহরাকে মা নীনা গুপ্তার বিয়ের কথা শুনে কী বলেছিলেন মাসাবা?

 নীনা যখন বিবেককে বিয়ে করেন ততদিনে মাসাবা অনেক বড় হয়ে গিয়েছে।

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Sep 30, 2020, 10:14 PM IST
৫৪তে এসে বিবেক মেহরাকে মা নীনা গুপ্তার বিয়ের কথা শুনে কী বলেছিলেন মাসাবা?

নিজস্ব প্রতিবেদন : ওয়েস্ট ইন্ডিজের নামী ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডসের সঙ্গে সম্পর্কটা পরিণতি লাভ করেনি নীনা গুপ্তার। ভিভের সঙ্গে সম্পর্কের প্রায় একদশক পর ২০০৮ সালে চাটার্ড অ্যাকাউন্টেন্ট বন্ধু বিবেক মেহরাকে বিয়ে করেন নীনা। তবে নীনা যখন বিবেককে বিয়ে করেন ততদিনে মাসাবা অনেক বড় হয়ে গিয়েছে।

প্রথমবার যখন বিবেক মেহরাকে বিয়ে করার কথা নীনা জনিয়েছিলেন, তখন তাঁর আর ভিভ রিচার্ডসের মেয়ে মাসাবার ঠিক কী প্রতিক্রিয়া হয়েছিল? সম্প্রতি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নীনা বলেন, ''সত্যি কথা বলতে কি আমার ওকে ( মেয়ে মাসাবা গুপ্তাকে) কথাটা বলার দরকার ছিল না। গত ৮-১০ বছর ধরে আমাদের সম্পর্ক। বিবেক মুম্বইয়ে আমার বাড়িতে আসতেন। আমিও দিল্লিতে ওর বাড়ি মাঝেমধ্যে যেতাম। তারপর আমি মাসাবাকে বললাম, আমি বিয়ে করতে চাই। বলতেই ও (মাসাবা) প্রশ্ন করেছিল কেন? আমি ওকে বলেছিলাম, সমাজে বাঁচতে গেলে বিয়েটা গুরুত্বপূর্ণ, তা নাহলে সঠিক সম্মান পাওয়া যায় না।''

আরও পড়ুন-আনলক-৫, ১৫ অক্টোবর থেকে শর্তমেনে সিনেমা হল খোলার অনুমতি দিল কেন্দ্র

নীনা গুপ্তা আরও জানান, ''মাসাবা আমায় বুঝেছিল। মাসাবা এমন মেয়ে যে মায়ের সুখের জন্য সব করতে পারে, সেটা ওর পছন্দ হোক বা না হোক। তাই আমি উদ্বিগ্ন ছিলাম না, তবে কথাটা ওকে বলতে অস্বস্তি হচ্ছিল।''

আরও পড়ুন-সুতো, মাটির, বুটিক জাতীয় গয়না নয়, পুজোতে গর্জাস, ট্রাডিশনাল সাজই পছন্দ : পায়েল সরকার

আরও পড়ুন-১৪ জুন সুশান্তের বাড়িতে ছিলেন, অভিনেতার প্রাক্তন রাঁধুনি কেশব এখন সারার বাড়িতে!

বিবেক মেহেরার সঙ্গে 'লং ডিসট্যান্স' সম্পর্ক নিয়ে মাসাবা বলেন, ''বিবেক ওর কাজ ছাড়তে চায় না। আমি আমার কাজ ছাড়তে চাই না। মাঝে আমি কাজ ছেড়ে ওর সঙ্গে থাকা শুরু করেছিলাম, কিন্তুু দেখলাম, কাজটা আমায় আনন্দ দেয়। আর আমরা তো অল্প বয়তে বিয়ে করিনি যে সন্তান হবে, বা আমাদের সন্তানরা ছোট এমনটাও নয়। আমরা জীবনের অনেক পড়ে গিয়ে বিয়ে করেছি। কখনও ও বলে যে আমার ওর সঙ্গে থাকা উচিত, কারণ আমি ওর স্ত্রী। তখন আমিও ওকে বলি, যে ওর আমার সঙ্গে থাকা উচিত, কারণ ও আমার স্বামী।''

প্রসঙ্গত, ১৯৮০ সালে এদেশে খেলতে এসেছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেট টিম। সেসময় ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের খ্যতনামা ক্রিকেটার ভিভ রিচার্ডসের মধ্যেই তাঁর প্রথম ভালোবাসা খুঁজে পেয়েছিলেন অভিনেত্রী নীনা গুপ্তা। ভিভের সঙ্গে আলাপ, হালকা কথাবার্তাতেই তাঁর প্রেমে পড়ে যান নীনা। একদিনের জন্য হলেও তাঁদের একসঙ্গে রাত কাটানোর সিদ্ধান্তই বদলে দেন নীনার জীবন।

সন্তানসম্ভবা হয়ে পড়েন নীনা। যদিও ভিভ নীনাকে বিয়ে করেননি, কারণ তিনি ইতিমধ্যেই বিবাহিত ছিলেন। তবে তিনি কখনওই নীনার সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের কথা অস্বীকারও করেননি। তবে সমাজকে পরোয়া না করেই মাসাবার জন্ম দেন নীনা। তবে সেসময় দাঁড়িয়ে নীনা গুপ্তার 'সিঙ্গল মাদার' হওয়ার সিদ্ধান্ত মোটেও সহজ ছিল না। তবে নীনা সেটাই করেন।