close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

ওবেসিটি অপারেশনে কমাতে পারে কিডনির অসুখের ঝুঁকি

শরীরে অতিরিক্ত পরিমাণে মেদ জমে গেলেই ওবেসিটির মতো রোগ দেখা দিতে পারে। আর এর ফলে অন্য বিভিন্ন রোগের প্রকোপ দেখা দিতে পারে শরীরে। হৃদরোগ, রক্তচাপ, টাইপ টু ডায়েবিটিস, কার্ডিভ্যাসকুলার রোগের মতো বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারেন।

Jhumur Das | Updated: Mar 26, 2018, 10:49 AM IST
ওবেসিটি অপারেশনে কমাতে পারে কিডনির অসুখের ঝুঁকি

নিজস্ব প্রতিবেদন: অতিরিক্ত মেদ ঝরিয়ে ফিট আর সুস্থ থাকার জন্য মানুষ কত কি-ই না করে চলেছেন। ডায়েট মেনে খাবার খাওয়া থেকে শুরু করে শরীরচর্চা, সব কিছুই চলছে নিয়ম মেনে। ওজন কমানোর জন্য চিকিত্সকের পরামর্শও নিচ্ছেন। তবে, ওজন কমানোর চিকিত্‌সা করানো নিয়ে অনেক মানুষের মধ্যেই সংশয় থাকে। তাঁরা মনে করেন, ওজন কমানোর চিকিত্‌সা এবং অপারেশন ডেকে আনতে পারে আরও নানা অসুখ। কিন্তু চিকিত্‌সকরা এ ব্যাপারে ইতিবাচক কথাই বলছেন।

আরও পড়ুন : গলার ক্যানসারের লক্ষণগুলো জেনে নিন

শরীরে অতিরিক্ত পরিমাণে মেদ জমে গেলেই ওবেসিটির মতো রোগ দেখা দিতে পারে। আর এর ফলে অন্য বিভিন্ন রোগের প্রকোপ দেখা দিতে পারে শরীরে। হৃদরোগ, রক্তচাপ, টাইপ টু ডায়েবিটিস, কার্ডিভ্যাসকুলার রোগের মতো বিভিন্ন রোগে আক্রান্ত হতে পারেন। শুধু তাই নয়, ওবেসিটির কারণে দেখা দিতে পারে কিডনির সমস্যাও। তাই শরীর থেকে অতিরিক্ত মেদ ঝরিয়ে ফেলা খুবই দরকারি। ওবেসিটি বা শরীরে জমে থাকা অতিরিক্ত মেদ ঝরানোর জন্য বিভিন্ন প্রক্রিয়ায় চিকিত্‌সা করা হয়। যেমন, ডায়েটারি মডেফিকেশন, ফার্মালজিক্যাল এবং সার্জিক্যাল ট্রিটমেন্টও করা হয় মেদ ঝরানোর জন্য।

সম্প্রতি একটি তথ্য প্রকাশ হয়েছে। যেখানে বলা হচ্ছে, কিডনির সমস্যা মারাত্মক আকার নিলে তা প্রাণঘাতীও হতে পারে। তথ্যে জানানো হচ্ছে, সার্জিক্যাল ট্রিটমেন্টের মাধ্যমে মেদ ঝরানো একদিকে যেমন ওবেসিটির হাত থেকে মুক্তি দেয়, তেমনই কিডনির অসুখের ঝুঁকিও কমিয়ে দিতে পারে।

সুইডেনের ইউনিভার্সিটি অফ গথেনবার্গের গবেষকরা একটি পরীক্ষা করেন। যেখানে তাঁরা ৩৭ থেকে ৬০ বছর বয়সী প্রায় ৪ হাজার রোগীর মধ্যে একটি সমীক্ষা চালান। ২০ বছরেরও বেশি সময় ধরে চালানো হয় এই সমীক্ষা। নজর রাখা হয় ওই ৪ হাজার মানুষের উপর। ওই ব্যক্তিদের অর্ধেকের মেদ ঝরানোর জন্য সার্জারি ট্রিটমেন্ট করা হয়। এবং বাকি ব্যক্তিদের নন-সার্জিক্যাল উপায়ে মেদ ঝরানো হয়। সমীক্ষা শেষে গবেষকরা জানাচ্ছেন, যাঁদের অপারেশনের মাধ্যমে মেদ ঝরানো হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে কিডনির সমস্যা, ক্যানসার, বিভিন্ন কার্ডিওভ্যাসকুলার রোগের ঝুঁকি অনেক কমে গিয়েছে বাকিদের তুলনায়।

আরও পড়ুন : ডায়াবিটিসকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে এই খাবারগুলো খান