করোনা ওয়ার্ডের ভিতরেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী কোভিড রোগী, চাঞ্চল্য এনআরএস-এ

করোনা চিকিৎসার ওয়ার্ডের মধ্যেই রোগীর আত্মহত্যার ঘটনা এটাই প্রথম বলে দাবি করেছেন এনআরএস-এর একাধিক প্রশাসনিক কর্তা। 

Reported By: অর্ণবাংশু নিয়োগী | Edited By: সুদেষ্ণা পাল | Updated By: Sep 6, 2020, 01:24 PM IST
করোনা ওয়ার্ডের ভিতরেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী কোভিড রোগী, চাঞ্চল্য এনআরএস-এ
প্রতীকী ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন :  চিকিৎসা চলাকালীন করোনা ওয়ার্ডের মধ্যেই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন এক কোভিড রোগী। ঘটনাটি ঘটেছে এনআরএস মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে করোনা চিকিৎসার বিল্ডিংয়ে। এই ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এনআরএস-এ।

হাসপাতাল সূত্রে খবর, রবিবার সকালে আত্মহত্যার ঘটনাটি প্রথম নজরে আসে ওয়ার্ডে থাকা কর্মীদের। তাঁরা দেখেন, ওয়ার্ডের মধ্যেই বাথরুমে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন কোভিড আক্রান্ত চিকিৎসাধীন এক রোগী। কাকদ্বীপের বাসিন্দা ওই রোগীর নাম রাজকুমার বেরা। সঙ্গে সঙ্গে তাঁরা দ্রুত খবর দেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে। খবর যায় পুলিসেও। পুলিস এসে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। কী কারণে ওই রোগী আত্মহত্যা করলেন, তা খতিয়ে দেখতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিস।

এনআরএস হাসপাতালের এক আধিকারিক জানিয়েছেন, "৩৮ বছর বয়সী রাজকুমার বেরা রক্তের একাধিক সমস্যায় আক্রান্ত ছিলেন। সেই নিয়ে তাঁর চিকিৎসা চলছিল হেমাটোলজি বিভাগে। পরে তিনি করোনা আক্রান্ত হন। তখন করোনা চিকিৎসার জন্য তাঁকে কোভিড ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছিল। রবিবার সকালে কর্মীরা বাথরুমের মধ্যে তাঁকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখেন। গোটা ঘটনায় সিসিটিভির ফুটেজ জোগাড় করা হচ্ছে। সেটি খতিয়ে দেখা হবে।"

করোনা চিকিৎসার ওয়ার্ডের মধ্যেই রোগীর আত্মহত্যার ঘটনা এটাই প্রথম বলে দাবি করেছেন এনআরএস-এর একাধিক প্রশাসনিক কর্তা। তবে এর আগে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে একজন করোনা রোগী আত্মহত্যার চেষ্টা করেন।

আরও পড়ুন, সাইকেল চোর নয়, নেপথ্যে বৌদি! তপসিয়ার যুবকের রহস্যমৃত্যুর কারণ বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক