ফোটোশপের কারিকুরিতে মোদী হলেন কারাট, অস্বস্তিতে তৃণমূল

তৃণমূল আর বিজেপির গোপন আঁতাতের অভিযোগ এনে বারবার সরব হয়েছে বাম-কংগ্রেস। এবার জবাব দিল তৃণমূলও। সেইসঙ্গে কেরল আর বাংলায় রাহুল গান্ধীর দু’রকম অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ডেরেক ও’ব্রায়েন।

Updated By: Apr 23, 2016, 09:24 PM IST
ফোটোশপের কারিকুরিতে মোদী হলেন কারাট, অস্বস্তিতে তৃণমূল
এই ছবিটি প্রথমে পোস্ট করা হয় তৃণমূল কংগ্রেসের ফেসবুক পেজে

ওয়েব ডেস্ক : তৃণমূল আর বিজেপির গোপন আঁতাতের অভিযোগ এনে বারবার সরব হয়েছে বাম-কংগ্রেস। এবার জবাব দিল তৃণমূলও। সেইসঙ্গে কেরল আর বাংলায় রাহুল গান্ধীর দু’রকম অবস্থান নিয়ে প্রশ্ন তুললেন ডেরেক ও’ব্রায়েন।

আড়ালে দোস্তি আর সামনে কুস্তি। মোদী মমতার সম্পর্ক নিয়ে বারবার এ অভিযোগ তুলেছে কংগ্রেস-সিপিএম। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের একটি পুরনো সাক্ষাত্কারের ফুটেজ সামনে এনে সেই বিতর্ক আরও উস্কে দিয়েছে কংগ্রেস। যেখানে মমতা বলেছেন, বিজেপি আমাদের স্বাভাবিক মিত্র। ভিডিওটি নিজেদের ওবেসাইটেও আপলোড করেছে কংগ্রেস। তবে এবার পাল্টা জবাব দিলেন তৃণমূলের ডেরেক ও’ব্রায়েন। কংগ্রেস যখন তৃণমূলের নীতিকে কটাক্ষ করছে, তখন রাহুল গান্ধীকে পাল্টা নিশানা করেছে তৃণমূল। ফেব্রুয়ারিতে কেরল আর চলতি মাসে এরাজ্যে রাহুলের দুটি সভার ভিডিওকে হাতিয়ার করেছে তাঁরা।

অন্যদিকে, বামেদেরও কটাক্ষ করতে ছাড়েনি তৃণমূল। বাম-বিজেপি নেতাদের বেশকিছু ছবি প্রকাশ্যে আনে তারা। তবে সেসব ছবি ফোটোশপের কারিকুরি বলে দাবি করে বিজেপি কর্তৃপক্ষ। দাবির স্বপক্ষে ছবিও প্রকাশ করে বিজেপি। আসল ছবিটি ২০১৩ সালের ১৯ সেপ্টেম্বর তোলা বলে জানানো হয়। এরপরই বিতর্কিত ছবিটি ফোটোশপ করা বলে সরিয়ে নেয় তৃণমূল। দলের তরফে বলা হয়, "ছবি ফোটোশপড ছিল। জানতে পারে তৃণমূলের রিসার্চ টিম।" তবে, বামেরা এত সহজে বিষয়টি ছেড়ে দিতে নারাজ। তারা আইনি পথে যাবেন বলে ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন।

আসল ছবিটি-