চব্বিশ ঘণ্টা পরও ব্যাঙ্ক ডাকাতির কোনও কিনারা করতে পারল না নিউ মার্কেট থানার পুলিস

বিভিন্ন সূত্র মারফত খবর জোগাড় করে পুলিসের প্রাথমিক অনুমান ব্যাঙ্কের সমস্ত বিষয় ওয়াকিবহাল এমন কোনও ব্যক্তি এই ডাকাতির সঙ্গে যুক্ত।

Reported By: সুকান্ত মুখোপাধ্যায় | Edited By: অধীর রায় | Updated By: Jun 30, 2020, 08:10 PM IST
চব্বিশ ঘণ্টা পরও ব্যাঙ্ক ডাকাতির কোনও কিনারা করতে পারল না নিউ মার্কেট থানার পুলিস
ইউকো ব্যাঙ্ক ডাকাতির কিনারা অধরাই

নিজস্ব প্রতিবেদন: চব্বিশ ঘন্টা কেটে গেলেও  নিউ মার্কেটের লিন্ডস স্ট্রিটে ইউকো ব্যাঙ্কে ডাকাতির কোনও কিনারা করতে পারল না নিউ মার্কেট থানার পুলিস। তবে বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পুলিসের হাতে এসেছে। বিভিন্ন সূত্র মারফত খবর জোগাড় করে পুলিসের প্রাথমিক অনুমান ব্যাঙ্কের সমস্ত বিষয় ওয়াকিবহাল এমন কোনও ব্যক্তি এই ডাকাতির সঙ্গে যুক্ত।

আরও পড়ুন: বুধবার থেকে 'আনলকড' কালিঘাট, প্রবেশদ্বারে বসল স্যানিটাইজিং টানেল

পুলিস মনে করছে এই ডাকাতির ঘটনার সঙ্গে যুক্ত বাইরের কোনও পেশাদার গ্যাং। যারা লোকাল সোর্স মারফত ব্যাঙ্কের কোথায় কী আছে , কীভাবে ঢোকা যাবে , কখন এলাকা ফাঁকা হয়ে যায় সব তথ্য সংগ্রহ করেছে। পুলিস নিউ মার্কেট চত্বরের সিসিটিভি ফুটেজ জোগাড় করেছে। সমস্ত বিষয় খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিস। 

আরও পড়ুন: আগামী বছর জুন পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেবে রাজ্য সরকার, ঘোষণা মমতার

সোমবার সকালে  ব্যাঙ্ক কর্মীরা এসে দেখেন সামনের দরজা অক্ষত থাকলেও ভিতরে লন্ডভন্ড। এরপর তাঁরা দেখেন গ্যাস কাঁটার দিয়ে ব্যাঙ্কের ভল্ট কাটা হয়েছে। তবে যেটাতে সোনা ছিল সেটা কাঁটতে পারেনি। খুচরো টাকার লকার কাটা হয়েছে। এছাড়া  প্রমাণ লোপাট করতে সিসিটিভি-র লাইন কেটে দিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। পুলিস  জানিয়েছে এই ব্যাঙ্কের পিছন দিকের একটি দরজা ঠিকমত লক হত না। দুষ্কৃতীরা সেই দরজা ব্যাঙ্কে ঢোকার ক্ষেত্রে ব্যবহার করেছে বলে প্রাথমিক অনুমান।