close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

রোজ ঘরোয়া কাজে মেয়েদের কত পরিশ্রম হয় জানেন?

প্রতিদিনের  ঘরোয়া কাজকর্মকে যাঁরা ‘সহজ’ বা ‘তুচ্ছ’ মনে করেন, এ প্রতিবেদন তাঁদের জন্য...

Sudip Dey | Updated: Dec 11, 2018, 07:18 PM IST
রোজ ঘরোয়া কাজে মেয়েদের কত পরিশ্রম হয় জানেন?
প্রতীকী ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আজকাল সমাজে মেয়েদের সমানাধিকারের দাবি তুলতে হয় না। এ কথা এখন এনেকেই মেনে নিয়েছেন যে, দৈনন্দিন জীবনে, বর্তমান কর্মব্যস্ততায় সংসারে মেয়েদের অংশগ্রহণ পুরুষদের তুলনায় অনেক বেশি। চাকুরিজীবী মহিলারা কর্পোরেট দুনিয়ার যাবতীয় কাজের চাপ সামলে  ঘর-সংসারের কাজও সমান দক্ষতা ও নৈপুন্যের সঙ্গে প্রতিদিন করে যান। সে দিক থেকে তাঁদের অবদান বা পরিশ্রম যে পুরুষদের তুলনায় অনেকটাই বেশি, তা আর বলে দিতে হয় না। তবে যে সব মহিলারা শুধু ঘর-সংসারের দায়িত্ব সামলান (হাউজ ওয়াইফ), তাঁদের পরিশ্রমের সঠিক মূল্যায়ণ কখনই হয় না। দুর্ভাগ্যের বিষয়, আজও এ কথা অনেকেই বিশ্বাস করেন, দৈনন্দিন গৃহস্থালীর কাজে অফিস-কাচারী করার মতো তেমন একটা পরিশ্রম হয় না। ঘরোয়া কাজ মানেই, সহজ কাজ। আর এই ধরণার জন্য আজও মেয়েদের কম লাঞ্ছনার শিকার হতে হয় না! কিন্তু পুষ্টিবীদদের মতে, দৈনন্দিন গৃহস্থালীর কাজে যে পরিমাণ ক্যালরি খরচ হয় তা সারাদিন বাসে-ট্রামে যাতায়াতের ঝক্কি, অফিসের কাজের চাপের তুলনায় মোটেই কম নয়, বরং বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই বেশি! আসুন এ বার জেনে নেওয়া যাক, দৈনন্দিন গৃহস্থালীর কোন কাজে কত  ক্যালরি খরচ হয়...

ঘর ঝাড় দেওয়া: ঘর পরিষ্কার রাখতে প্রতিদিন অন্তত একবার ঘর ঝাড় (ঝাড়ু) দিতেই হয়। আর এই কাজটা যাঁরা নিজে করেন তাঁরা প্রতিদিন অন্তত ১২৫ ক্যালরি খরচ করেন এই কাজে।

ঘর মোছা: পরিষ্কার করে  ঘর মোছা মোটেই সহজ কাজ নয়। হাঁটু মুড়ে বসে ঘরের কোনায় কোনায় হাত ঘুরিয়ে মুছতে হয়। এতে পা, পিঠ ও কোমরের  কসরত্ হয় যথেষ্ট। সেই সঙ্গে হাতেরও ব্যায়াম হয়ে যায়। মাত্র ২০ মিনিট ঘর মুছতে প্রায় ১৫০ ক্যালরি খরচ হয়।

রুটির বানানো: রুটি অত্যন্ত স্বাস্থ্যকর, খেতেও ভাল লাগে। জানেন এই রুটি বানাতে কতটা ক্যালরি খরচ হয়? রুটি বানাতে গিয়ে আটা মাখতেই প্রায় ৫০ ক্যালরি খরচ হয়।

রান্না: যাঁরা প্রতিদিন রান্না-বান্না করেন, তাঁদের অন্তত ১০০ ক্যালরি খরচ হয় এই কাজে।

বাসন ধোয়া: খাওয়া-দাওয়ার পর প্রতিদিন‘চোদ্দবার’ বাসন ধোয়াটা কিন্তু মোটেই ততটা সহজ কাজ নয়, যতটা দেখে মনে হয়! সকালের জলখাবার থেকে শুরু করে নৈশভোজের পর... সব মিলিয়ে কিন্তু কম বাসন জমে না। জানেন, সারাদিনে এই বাসন ধোয়ায় অন্তত ১২৫ ক্যালরি খরচ হয়।

কাপড় কাচা: কাপড় কাচার জন্য এখন অনেকেই ওয়াশিং মেশিনের ব্যবহার  করেন। তবে যাঁরা ওয়াশিং মেশিন ছাড়া নিজেরাই প্রতিদিন কাপড় কাচাকাচি করেন তাঁদের এ কাজে অন্তত ১৩০ ক্যালরি খরচ হয়।

উল্লেখিত এই ৬টি কাজেই সব মিলিয়ে প্রায় ৬৮০ থেকে ৭০০ ক্যালরি খরচ হয়। এমন আরও আনুসাঙ্গিক অনেক কাজ রয়েছে, যার হিসাব আমরা অনেকেই রাখি না। ‘গুড হাউজকিপিং’ নামের একই আন্তর্জাতিক পত্রিকায় প্রকাশিত প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, যে দৈনন্দিন  গৃহস্থালীর কাজে প্রতিদিন প্রায় ১২০০ থেকে ১৫০০ ক্যালরি খরচ হয়। সুতরাং, যে সব মহিলারা শুধু ঘর-সংসারের দায়িত্ব সামলান (হাউজ ওয়াইফ), তাঁদের কাজও যে যথেষ্ট পরিশ্রমসাধ্য তাতে আর কোনও সন্দেহ নেই।