যে ৫টি অভ্যাসে আপনি অফিসেও ফিট থাকবেন

দিনের বেশিরভাগ সময়টা আমরা অফিসেই কাটাই। ন্যূনতম ৮ ঘণ্টা থেকে কখনও কখনও ১০ ঘণ্টাও। একটানা অফিসে বসে কাজ করে যাওয়ার এই সময়টায় মাঝে মাঝে আমাদের ক্লান্তি ঘিরে ধরে। সেই ক্লান্তির কিছুটা শারীরিক, কিছুটা মানসিকও বটে। তবে, এমন বেশকিছু ফিটনেস হ্যাবিট রয়েছে যেগুলিকে অভ্যাস বানিয়ে নিলে আপনার অফিস আওয়ারটা বেশ তরতাজা হয়ে উঠবে।

Updated By: Jun 25, 2016, 08:51 AM IST
যে ৫টি অভ্যাসে আপনি অফিসেও ফিট থাকবেন

ওয়েব ডেস্ক : দিনের বেশিরভাগ সময়টা আমরা অফিসেই কাটাই। ন্যূনতম ৮ ঘণ্টা থেকে কখনও কখনও ১০ ঘণ্টাও। একটানা অফিসে বসে কাজ করে যাওয়ার এই সময়টায় মাঝে মাঝে আমাদের ক্লান্তি ঘিরে ধরে। সেই ক্লান্তির কিছুটা শারীরিক, কিছুটা মানসিকও বটে। তবে, এমন বেশকিছু ফিটনেস হ্যাবিট রয়েছে যেগুলিকে অভ্যাস বানিয়ে নিলে আপনার অফিস আওয়ারটা বেশ তরতাজা হয়ে উঠবে।

১) একটানা বহুক্ষণ চেয়ারে ঠায় বসে না থেকে মাঝে মাঝে উঠুন। অফিসের মধ্যেই একচক্কর কেটে নিন। হাতে একটু সময় থাকলে অফিসের বাইরে গিয়ে একপাক ঘুরে আসুন। চেয়ারে বসে ফোনে কথা না বলে, বরং পায়চারি করতে করতে ফোনে কথা বলুন।

২) চেয়ারে বসে বসে কিছু স্ট্রেচিং এক্সারসাইজ করতে পারেন। এতে আপনার পা ও পিঠের পেশী সচল থাকবে।

৩) মনে করে কিছু সময় বাদে বাদেই জল খান। জলের অভাবে শরীর ডিহাইড্রেটেড হয়ে পড়ে। ফলে পেশী সংকোচন দেখা দেয়। জলের অভাবে ঝিমিয়ে পড়ে আমাদের মস্তিষ্কও। প্রতি ৪৫ থেকে ৬০ মিনিট অন্তর অন্তত এক কাপ করে জল খাওয়া অভ্যাস করে ফেলুন।

৪) আপনার কম্পিউটার মনিটর, কি বোর্ড ও চেয়ারকে একই সরলরেখায় রেখে ডেস্কে বসুন। চেয়ারে বসার পর আপনার পা যেন মেঝের সঙ্গে ৯০ ডিগ্রি কোণে থাকে। মনিটরের স্ক্রিনটি যেন চোখের সঙ্গে একই লেভেলে থাকে।

৫) অফিস আওয়ারে বেশি ঝাল-তেল-মশলা বা স্পাইসি খাবার না খাওয়াই ভালো। হাল্কা খাবার খান। সম্ভব হলে বাড়ি থেকে খাবার নিয়ে আসুন।