আজ পাতে ফিরুক ছেলেবেলার মৌরলা মাছের চচ্চড়ি

আজ মাছের যে পদটি নিয়ে কথা বলছি, সেটি নামী-দামি রেস্তোরাঁ বা ফুড ফেস্টিভল-এও পাওয়া যাবে না। বেগুন দিয়ে মৌরলা মাছর চচ্চড়ি।

Updated: Aug 25, 2018, 12:39 PM IST
আজ পাতে ফিরুক ছেলেবেলার মৌরলা মাছের চচ্চড়ি

আজকাল ফাস্ট ফুডের জামানায় পিজ্জা-বার্গার-চিকেন ফ্রাইয়ের ভিড়ে যেন হারিয়েই গিয়েছে বাঙালি হেঁসেলের চিরায়ত খাবারগুলো। আমাদের ছেলেবেলার মাছের ঝালে-ঝোলে-অম্বলের মুখরোচক বিভিন্ন পদ, চচ্চড়ি, তরকারি— সবই প্রায় হারিয়ে যেতে বসেছে।

এখন পরিস্থিতি এমন হয়েছে যে, মানুষ রেস্তোরাঁর বিভিন্ন মুখরোচক পদের রেসিপি জেনে নিয়ে বাড়িতেই বানিয়ে ফেলছেন যখন তখন। আর নামী-দামি রেস্তোরাঁগুলো দিনে দিনে হারিয়ে যেতে বসা তৃপ্তীদায়ক নিতান্ত ঘরোয়া পদগুলো বানিয়ে সাজিয়ে দিচ্ছে দৈনন্দিন ব্যস্ততায় ঘরের খাবারের স্বাদ ভুলে যাওয়া মানুষগুলোর পাতে।

আরও পড়ুন: আজ চেটেপুটে খান বেগুন-ইলিশের ঝোল

তবে আজ যে মাছের পদটি নিয়ে কথা বলছি, সেটি নামী-দামি রেস্তোরাঁ বা ফুড ফেস্টিভল-এও পাওয়া যাবে না। বেগুন দিয়ে মৌরলা মাছর চচ্চড়ি। গরম গরম ভাতের সঙ্গে মৌরলা মাছর চচ্চড়ি আসলেই ভীষণ মুখরোচক একটি খাবার। তবে হ্যাঁ, সব বেগুনে এই চচ্চড়ি মজাদার হবে না। এই রান্নার জন্য বেছে নিতে হবে একদম লম্বাটে দেশি বেগুন। কেটে নিতে হবে একটু লম্বা লম্বা করে। তবেই মিলবে স্বাদ, মৌরলা আর বেগুন মিলে আপনার হেঁসেলে নিয়ে আসবে দুর্দান্ত বাঙালিয়ানার স্বাদ। চলুন, জেনে নেওয়া যাক বাঙালির ভাললাগা নিতান্ত সাদামাটা অথছ সুস্বাদু এই রেসিপি।

মৌরলা মাছের চচ্চড়ি বানাতে লাগবে:—

মৌরলা মাছ ২৫০ গ্রাম (ধুয়ে নিয়ে প্যানে হালকা ভেজে নেওয়া। রান্নার আগে সামান্য ভেজে নিলে মৌরলা মাছর স্বাদ আরও খোলতাই হবে)।

বেগুন ছোট ছোট টুকরো করা ১০-১২ টুকরো।

পেঁয়াজ কুচি দেড় কাপ।

হলুদ গুঁড়ো ১ চা চামচ।

লঙ্কার গুঁড়ো ২ চা চামচ ( ঝাল কম খেতে চাইলে কম করে দিতে পারেন)।

ধনেগুঁড়ো ১ চা চামচ ।

তেল আধা কাপ।

নুন স্বাদ মতো।

আরও পড়ুন: দুপুর হোক বা রাত, পটলের দোপেঁয়াজায় জমে উঠুক পাত

মৌরলা মাছের চচ্চড়ি বানানোর পদ্ধতি:—

প্রথমে প্যানে তেল গরম করে এতে পেঁয়াজ কুচি দিন।

মাঝারি আঁচে পেঁয়াজ নরম হবার আগ পর্যন্ত নাড়াচাড়া করুন ৩ থেকে ৪ মিনিট।

এ বার সব গুঁড়ো মশলা দিয়ে নাড়াচাড়া করে অল্প জল দিয়ে মশলা কষিয়ে নিন।

এ বার হালকা করে ভেজে রাখা মৌরলা মাছ দিয়ে নাড়াচাড়া করে আরও একটু কষিয়ে নিন।

এর পর রান্নায় বেগুনের টুকরো, স্বাদ মতো নুন, কয়েকটা কাঁচালঙ্কা আর আধা কাপ জল দিয়ে ঢেকে দিন। মাঝারি আঁচে রান্না করুন আরও ১০ থেকে ১৫ মিনিট।

তরকারির তেলটা উপরে উঠে এলে আঁচ থেকে নামিয়ে গরম গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করুন মুখরোচক বেগুন দিয়ে মৌরলা মাছের চচ্চড়ি।