শ্রীরামচন্দ্রের নামে এবার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর! বছরখানেকের মধ্যে শেষ হবে নির্মাণকাজ

২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে এই বিমানবন্দরের কাজ শেষ হয়ে যাবে।

Edited By: সুমন মজুমদার | Updated By: Sep 9, 2020, 11:28 AM IST
শ্রীরামচন্দ্রের নামে এবার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর! বছরখানেকের মধ্যে শেষ হবে নির্মাণকাজ
নিজস্ব প্রতিবেদন- রাম মন্দির নির্মাণ হলেই অযোধ্যায় দেশের বিভিন্নর প্রান্ত থেকে ভক্তদের সমাগম হবে। তবে শ্রীরাম জন্মভূমি ট্রাস্ট ও যোগী আদিত্যনাথ মনে করছেন, মন্দির নির্মাণের পর সেখানে সারা বছর ধরে বিদেশি ভক্তদেরও ভিড় থাকবে। আর তাই অযোধ্যার সঙ্গে গোটা দেশ, এমনকী বিশ্বেরও যোগাযোগ ব্যবস্থা বাড়ানোর উদ্যেগ নিয়েছে যোগী সরকার। আর তাই এবার অযোধ্যায় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দ নির্মাণের কাজ শুরু হয়েছে। সেই বিমানবন্দরের নামকরণ হবে শ্রীরামচন্দ্রের নামে। তবে ২০১৭ সাল থেকেই সেখানে বিমানবন্দর নির্মাণের কাজ চলছিল। কিন্তু এবার সেই বিমানবন্দর সম্প্রসারণ করে সেটিকে আন্তর্জাতিক হিসাবে গড়ে তুলতে উদ্যোগী হয়েছে যোগী সরকার। জানা গিয়েছে, ২০২১ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে এই বিমানবন্দরের কাজ শেষ হয়ে যাবে।
 
২০১৭ সালে যখন অযোধ্যার বিমানবন্দরটির কাজ শুরু হয়েছিল তখন সেটিকে এটিআর-৭২ বিমানের জন্য প্রস্তুত করা হয়েছিল। আর তাই রানওয়ে ১৬৮০ মিটার দূরত্বের রাখা হবে বলে ঠিক হয়েছিল। এর পর এ-321, 200 সিটার বিমান ওঠা-নামার জন্য বিমানবন্দরের সম্প্রসারণ হবে বলে ঠিক করা হয়। তখন ঠিক হয়েছিল রানওয়ের দূরত্ব রাখা হবে ২৩০০ মিটার। কিন্তু এর পর যোগী আদিত্যনাথ এই বিমানবন্দরকে বোয়িং বিমানের ওঠা-নামার জন্য প্রস্তুত করতে চেয়েছিলেন। তখনই তিনি এই বিমানবন্দরের নাম পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তবে সেই সময় তিনি নাম কী হবে তা নিয়ে কিছু বলেননি। এখন জানা যাচ্ছে, এই বিমানববন্দরকে আন্তর্জাতিক হিসাব প্রস্তুত করা হবে। আর নাম হবে শ্রীরামের নামে।
 
আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর গড়তে কম করে ৬০০ একর জমি লাগবে। ৩৭৫০ মিটার লম্বা ও ৪৫ মিটার চওড়া রানওয়ে থাকতে হবে। আর তাই এবার অযোধ্যার বিমানবন্দরের সম্প্রসারণের কাজ শুরু হয়েছে। তবে এখনও এই বিমানবন্দরটি আন্তর্জাতিক হিসাবে স্বীকৃততি পায়নি। যোগীর সরকার ইতিমধ্যে বন্দর সম্প্রসারণের জন্য জমি চিহ্নিত করেছে। জেলাধিকারিকরা এরই মধ্যে সেইসব জমি পরিদর্শন করে রিপোর্ট জমা দিয়েছেন।