"কেন গুলি করা হল খতিয়ে দেখতে হবে," হায়দরাবাদ এনউন্টারে তদন্তের দাবি দিলীপ ঘোষের

সাইবারাবাদ পুলিসের কাজে খুশি লকেট। "এভাবে নারী নিরাপত্তা সুনিশ্চিত হয় না" টুইটে অন্য মত সীতারাম ইয়েচুরির। ওই একই ঘটনায় আংশিক দিলেন সায় দিলীপ ঘোষ। তবে ঘটনায় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন তিনি।

Updated By: Dec 6, 2019, 12:45 PM IST
"কেন গুলি করা হল খতিয়ে দেখতে হবে," হায়দরাবাদ এনউন্টারে তদন্তের দাবি দিলীপ ঘোষের

নিজস্ব প্রতিবেদন: এনকাউন্টার বিতর্কে বিভক্ত রাজনৈতিক মহল। সাইবারাবাদ পুলিসের কাজে খুশি লকেট। "এভাবে নারী নিরাপত্তা সুনিশ্চিত হয় না" টুইটে অন্য মত সীতারাম ইয়েচুরির। ওই একই ঘটনায় আংশিক দিলেন সায় দিলীপ ঘোষ। তবে ঘটনায় তদন্তের দাবি জানিয়েছেন তিনি। 

শুক্রবার পশু চিকিৎসক তরুণীর ধর্ষকদের এনকাউন্টারে মৃত্যুর ঘটনায় দিলীপ ঘোষের বক্তব্য, "অপরাধ হয়েছে, সকলে নিন্দাও করছে, তবে এভাবে হবে না। আইনকে আরও কড়া হতে হবে। প্রশাসনকে আরও সক্রিয় হতে হবে ধর্ষণ রুখতে। যারা দোষী তাদের ধরা হয়েছে, পালাতে গেলে গুলিও করা হয়েছে। তবে ঠিক কী হয়েছে সমস্তটা তদন্ত করে দেখতে হবে। এ ক্ষেত্রে যারা দোষী তাঁদের ধরে কড়া শাস্তি দিতে আইনকেও আরও শক্ত হতে হবে।

আরও পড়ুন: এনকাউন্টারে স্বস্তি সাধারণের, সাইবারাবাদ পুলিসের নামে জয়ধ্বনি পথে-ঘাটে

২৭ নভেম্বর সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ টোল প্লাজায় তরুণী চিকিৎসককে স্কুটার রাখতে দেখেই তাঁকে ধর্ষণের ছক কষেছিল চার অভিযুক্ত। সাহায্যের নাম করে ধর্ষণ করা হয় ওই তরুণীকে। এর পরে আন্ডারপাসের এক কোণে দেহ নামিয়ে তেল ঢেলে আগুন জ্বালিয়ে দিয়ে পালায় তারা। পরের দিন সকালে শামশাবাদে ওই চিকিৎসকের পোড়া দেহাংশ মেলে। ভোরে এক ব্যক্তি সেখানে দেহটি জ্বলতে দেখে পুলিসে খবর দেন। ঘটনারর ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ৪ অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে সাইবারাবাদ পুলিস। শুক্রবার সকালে ঘটনাস্থলে নিয়ে যাওয়ার সময় সুযোগ বুঝে পালানোর চেষ্টা করে ওই ৪ অভিযুক্ত। বাধ্য হয়ে গুলি চালায় পুলিস। তাতেই মৃত্যু হয় ওই চার অভিযুক্তের।