Tripura: আবার আক্রান্ত তৃণমূল, হাসপাতালে ভর্তি শান্তনু

এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস (TMC) এবং শনিবার বিকেলে আগরতলায় থানা ঘেরাও কর্মসূচির ডাক দিয়েছে তারা।

Updated By: Oct 16, 2021, 12:49 PM IST
Tripura: আবার আক্রান্ত তৃণমূল, হাসপাতালে ভর্তি শান্তনু

নিজস্ব প্রতিবেদন: ত্রিপুরায় (Tripura) ফের আক্রান্ত তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। ত্রিপুরা (Tripura) প্রদেশ যুব তৃনমূল কংগ্রেসের স্টিয়ারিং কমিটির সদস্য শান্তনু সাহা কে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ বিজেপি (BJP) কর্মীদের বিরুদ্ধে। 

শুক্রবার রাতে আগরতলায় শান্তনুর বাড়িতে হামলা চালায় BJP কর্মীরা এমনটাই অভিযোগ তৃণমূলের (TMC)। তার বাড়িতে হামলা চালিয়ে তাকে বেধড়ক মারধর করারও অভিযোগ উঠেছে BJP-র বিরুদ্ধে। ঘটনার পরে শান্তনুকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়। এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে তৃণমূল কংগ্রেস (TMC) এবং শনিবার বিকেলে আগরতলায় থানা ঘেরাও কর্মসূচির ডাক দিয়েছে তারা। শান্তনুকে দেখতে হাসপাতালে যান ত্রিপুরা (Tripura) প্রদেশ তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) স্টিয়ারিং কমিটির আহ্বায়ক সুবল ভৌমিক। 

আরও পড়ুন: Umar Mustaq Khandey: LeT কমান্ডার এবং মোস্ট ওয়ান্টেড সন্ত্রাসবাদী আটক পামপুরে

এই ঘটনার নিন্দা করে তৃণমূল (TMC) নেতা তাপস রায় জানিয়েছেন," যত দিন যাবে, ত্রিপুরা (Tripura) সহ অন্যান্য রাজ্যের নির্বাচন এগিয়ে আসবে। ওদের এই হঠকারিতা, মারধর, বলপ্রয়োগ, রক্তপাত এই ধরণের ঘটনা ছাড়া ওদের কাছে আর কোনো রাস্তা নেই। সুতরাং আমরাও তৈরী, আমাদের কর্মীরাও তৈরী। দুঃখের বিষয় যে ত্রিপুরার (Tripura) প্রশাসন তারা এতকিছুর পরও কোনো অ্যাকশন নিচ্ছে না।" তিনি আরও বলেন, "ত্রিপুরায় (Tripura) তিনি মধ্যেই তৃণমূল কংগ্রেস (TMC), BJP বিরোধী শক্তি হিসেবে উঠে এসেছে। ত্রিপুরার (Tripura) মানুষ BJP- র বিরুদ্ধে তৃণমূলকে (TMC) গ্রহণ করেছে এটাই ওদের রাগের কারণ। সেই কারণেই ওরা এই ঘটনা ঘটাচ্ছে। কিন্তু অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলে দিয়েছেন কিছু করেই আমাদেরকে দমন করা যাবে না। আমরা আমাদের রাজনৈতিক কার্যকলাপ, ত্রিপুরার (Tripura) বুকে চালিয়ে যাবো, যাই হয়ে যাক।" 

BJP নেতা জয়প্রকাশ নারায়ণ জানিয়েছেন, "তৃণমূলের এইসব অভিযোগের আগে এই রাজ্যের যে ১৩০ নাকি ১৪০ নাকি ১৭০, যে হিসাব আমরাও এখনো করতে পারিনি, এই মানুষকে যে খুন করা হল তার উত্তর দিন। মারধর নিয়ে এতো উতলা হচ্ছেন কেন? আর সত্যি কি ঘটনা ঘটেছে ত্রিপুরায় (Tripura) তা সেখানে আলোচনা হবে। এই কলকাতায় বসে পশ্চিমবঙ্গে যে এতো শহীদ করেছেন, মায়ের কোল শূন্য করেছেন এই সৌগত বাবু, তাপস বাবু এবং তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) যৌথ উদ্যোগে তার উত্তর দিন। ত্রিপুরায় (Tripura) কাকে কি করা হয়েছে সেটা ত্রিপুরার (Tripura) ওখানকার লোকজন বুঝবে, তার প্রতিফলন ওখানে হবে। আগে পশ্চিমবঙ্গের মানুষের মৃত্যুর হিসাব দিন।"   

এর আগে ত্রিপুরায় দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন তৃণমূলের (TMC) যুব নেতা দেবাংশু ভট্টাচার্য, সুদীপ রাহা এবং জয়া দত্তরা। BJP-র বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ করেন তাঁরা। এরপরেই গ্রেফতার করা হয় এই তিন যুব নেতা-সহ তৃণমূলের একাধিক নেতা-কর্মীকে। এই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয় তৃণমূল। তড়িঘড়ি ত্রিপুরা (Tripura) যান তৃণমূলের তিন শীর্ষ নেতা দোলা সেনা, ব্রাত্য বসু এবং কুণাল ঘোষ। ত্রিপুরায় (Tripura) যান তৃণমূলের (TMC) সর্বভারতীয় সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় (Abhishek Banerjee)। সহকর্মীদের মুক্তির দাবিতে সারাদিন খোয়াই থানায় বসেছিলেন তিনি। শেষে ত্রিপুরা (Tripura) আদালত থেকে জামিন পান ১৪ জন তৃণমূল নেতা। দেবাংশু, জয়া এবং সুদীপকে সঙ্গে নিয়ে কলকাতায় ফেরেন অভিষেক।    

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)