বাবার মৃত্যুর পরদিনই ক্রিকেটে ফিরেছিলেন, সদ্যোজাত সন্তানকে দেখে কেন অস্ট্রেলিয়া ফিরছেন না কোহলি? স্পষ্ট করলেন শাস্ত্রী

রথম সন্তান হওয়ার মুহূর্ত প্রত্যেকের কাছেই খুব স্পেশাল।

Edited By: সুখেন্দু সরকার | Updated By: Nov 23, 2020, 09:45 PM IST
বাবার মৃত্যুর পরদিনই ক্রিকেটে ফিরেছিলেন, সদ্যোজাত সন্তানকে দেখে কেন অস্ট্রেলিয়া ফিরছেন না কোহলি? স্পষ্ট করলেন শাস্ত্রী
ফাইল ছবি

নিজস্ব প্রতিবেদন:  অস্ট্রেলিয়া সফরে প্রথম টেস্ট খেলেই পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে দেশে ফিরছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ক্যাপ্টেন কোহলির দেশে ফিরে আসা নিয়ে ইতিমধ্যেই দ্বিধা-বিভক্ত ক্রিকেট দুনিয়া। ধোনির সঙ্গে তুলনা করে অনেকেই বিরাটকে একহাত নিয়েছেন। তোপ দেখেছেন স্বয়ং বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিল দেবও। টিম ইন্ডিয়ার হেড কোচ রবি শাস্ত্রীকে অবশ্য পাশে পেলেন ক্যাপ্টেন কোহলি। বাবার মৃত্যুর পরদিনই ক্রিকেটে ফিরেছিলেন যে ছেলে সে নিজের সন্তানের মুখ দেখে কেন অস্ট্রেলিয়া সফরে ফিরতে পারছেন না! তা স্পষ্ট করলেন শাস্ত্রী।

বাবার মৃত্যুর পরের দিন দিল্লির হয়ে কর্নাটকের বিরুদ্ধে ঘরোয়া ক্রিকেটের ম্যাচে মাঠে নেমেছিলেন বিরাট কোহলি। সেই বিরাট কোহলি কেন নিজের সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার পর, অস্ট্রেলিয়া সফরে এক টেস্ট খেলে ফিরে আসছেন তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন অনেকেই। কেন তিনি আবার অস্ট্রেলিয়ায় ফেরত যাচ্ছেন না অনেকের কৌতুহল রয়েছে সে নিয়েও।

সুনীল গাভাসকর, কপিল দেব  বিদেশ সফরে থাকায় তাঁদের সন্তানের মুখ দেখতে পাননি। সেই উদাহরণ যোগ করে কোহলির দেশে ফেরাকে ঘুরিয়ে বিলাসিতা বলেছেন অনেকেই। এ প্রসঙ্গে ভারতীয় দলের কোচ রবি শাস্ত্রী বলেন, "প্রথম সন্তান হওয়ার মুহূর্ত প্রত্যেকের কাছেই খুব স্পেশাল। বিরাট সেই কারণেই দেশে ফিরছেন। কোহলির ক্রিকেটের প্রতি ভালোবাসা নিয়ে কোনও প্রশ্ন থাকতে পারে না। এটা মনে রাখবেন, উপমহাদেশের কোনও অধিনায়ক হিসেবে বিরাটই প্রথম অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে এসেছে। সুযোগ থাকলে বিরাট সন্তানের মুখ দেখে অস্ট্রেলিয়ায় ফিরে শেষ টেস্ট খেলতে পারত। কিন্তু যেহেতু অস্ট্রেলিয়ায় করোনার জন্য কঠোর কোয়ারেন্টিন নীতি রয়েছে। ফলে অস্ট্রেলিয়ায় এসে বিরাটকে ১৪ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। ফলে তার পক্ষে শেষ টেস্টে মাঠে নামা কোনও ভাবেই সম্ভব নয়।"

আরও পড়ুন - বাবার স্বপ্নকে বাস্তবায়িত করতে বদ্ধপরিকর সিরাজ