close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

"নেত্রী বললে দিলীপ ঘোষ, সুজন চক্রবর্তীও আমার নেতা"

"ব্যারাকপুর লোকসভার মধ্যে সর্বোচ্চ লিড দেবে বিজপুর। ৯৮ হাজার লিড দেবে।"  দাবি আত্মবিশ্বাসী শুভ্রাংশুর।

Updated: Mar 14, 2019, 10:46 PM IST
"নেত্রী বললে দিলীপ ঘোষ, সুজন চক্রবর্তীও আমার নেতা"

নিজস্ব প্রতিবেদন : তিনি তৃণমূলে ছিলেন। তিনি তৃণমূলে আছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যতদিন দলনেত্রী আছেন, ততদিন তিনি তৃণমূলে থাকবেন। দল ছাড়ার কোনও প্রশ্ন-ই ওঠে না। সাংবাদিক বৈঠক করে সাফ জানিয়ে দিলেন বিজপুরের বিধায়ক মুকুল পুত্র শুভ্রাংশু রায়। আর তারপরই উঠল অন্য প্রশ্ন।

সাংবাদিক বৈঠকে শুভ্রাংশু রায় বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যতদিন দলনেত্রী, ততদিন আমি তৃণমূলেই আছি।" তাঁর এই কথার প্রেক্ষিতেই সাংবাদিকরা মুকুল পুত্রের কাছে জানতে চান? তারপর? সাংবাদিকদের মুখের কথা কেড়ে নিয়ে শুভ্রাংশু রায় বলেন, "মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর দলের দায়িত্বভার যদি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাঁধে অর্পণ করা হয়, তাহলে তাঁকেই নেতা মানব। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নেতা হিসেবে যাকে বসিয়ে দেবেন, আমি তাঁকেই নেতা বা নেত্রী বলে মানব। সেটা দিলীপ ঘোষ হোক বা সুজন চক্রবর্তী হোক।"

আরও পড়ুন, লোকসভা ভোটে প্রার্থী ঘোষণা হতেই ট্রোলড, উপযুক্ত জবাব দিলেন মিমি-নুসরত

এদিন মুকুল রায়ের উপস্থিতিতে দিল্লিতে বিজেপিতে যোগ দেন ভাটপাড়ার ৪ বারের বিধায়ক অর্জুন সিং। সাংবাদিক বৈঠকে এবিষয়ে প্রশ্ন করা হলে, মন্তব্য করতে রাজি হননি শুভ্রাংশু।  অর্জুন সিংকে 'সিনিয়র লিডার' হিসেবে উল্লেখ করে তিনি শুধু বলেন, "এসম্পর্কে কিছুই বলব না। কেউ চলে গেছে, তাকে নিয়ে আর ভাবার দরকার নেই।"

ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে এবার টিকিটের দাবিদার ছিলেন অর্জুন সিং। তৃণমূলের অন্দরে গুঞ্জন শোনাও গিয়েছিল যে, এবার লোকসভা ভোটে ব্যারাকপুর কেন্দ্র থেকে দীনেশ ত্রিবেদী নয়, অর্জুন সিংকে প্রার্থী করা হবে। কিন্তু শেষপর্যন্ত সোমবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুই নেতাকেই নবান্নে ডেকে পাঠান। সেখানেই স্পষ্ট করে দেন তাঁর সিদ্ধান্ত। জানান, লোকসভা ভোটে ব্যারাকপুর কেন্দ্র থেকে প্রার্থী করা হবে দীনেশ ত্রিবেদীকেই। অর্জুন সিংকে মন্ত্রিত্বের প্রস্তাব দেন মুখ্যমন্ত্রী।

লোকসভা ভোটের টিকিট হাতছাড়া হতেই অর্জুন সিং বিজেপিতে যোগদানের বিষয়ে মনস্থির করে ফেলেন বলে ঘনিষ্ঠ সূত্রে খবর। এরপরই বুধবার সন্ধ্যায় দিল্লি উড়ে যান অর্জুন সিং। রাতে কৈলাস বিজয়বর্গীয়র সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকের পর বৃহস্পতিবার দুপুরে বিজেপিতে যোগ দেন ভাটপাড়া বিধায়ক। ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্র থেকে অর্জুন সিংকে প্রার্থী করছে বিজেপি। ফলে ব্যারাকপুরে লোকসভা আসনে অর্জুন সিং বনাম দীনেশ ত্রিবেদী ফাইট হতে চলেছে।

আরও পড়ুন, অর্জুনের হাত ধরে বিজেপিতে ২২ কাউন্সিলর? প্রশ্নের মুখে ভাটপাড়ায় তৃণমূল পুরবোর্ডের ভবিষ্যত

কিন্তু অর্জুন সিং তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া ভোটের ফলে কোনও প্রভাব ফেলবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। ব্যারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে দীনেশ ত্রিবেদী-ই জিতবেন বলে আত্মবিশ্বাসী ঘাসফুল শিবির। সাংবাদিক বৈঠকে সেকথা বলেন শুভ্রাংশু রায়ও। তিনি বলেন, "ব্যারাকপুর লোকসভার মধ্যে সর্বোচ্চ লিড দেবে বিজপুর। ৯৮ হাজার লিড দেবে।" লোকসভা ভোটে অবাঙালি ভোটব্যাঙ্ক অর্জুন সিং টেনে নিতে পারেন বলে মনে করছে রাজনৈতিক মহল। যদিও শুভ্রাংশু রায় দাবি করেন, অবাঙালি ভোটব্যাঙ্ক অটুট রয়েছে।

আরও পড়ুন, 'সুবিধাবাদী' অর্জুনের বিজেপিতে যোগদানে 'শুভেচ্ছা' দীনেশ ত্রিবেদীর