ভবানীপুরে পাল্টা চমক দেবে BJP: Samik, এটা Mamata-র হার স্বীকার : Sujan

"মমতা ব্যানার্জি দাঁড়ানোয় আমরা সবাই খুশি। নন্দীগ্রামের জন্য তিনি অনেক করেছেন। শুভেন্দু অধিকারী ভেবেছিলেন যে, অনেক আসন জিতে নেবেন! এখন কিছুই করতে পারবেন না। মানুষ ওকে ছুঁড়ে ফেলে দেবে।" 

Updated By: Jan 18, 2021, 05:01 PM IST
ভবানীপুরে পাল্টা চমক দেবে BJP: Samik, এটা Mamata-র হার স্বীকার : Sujan

নিজস্ব প্রতিবেদন : নন্দীগ্রাম কার? আজকের সভার পর নন্দীগ্রাম ইস্যুতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) বনাম শুভেন্দু অধিকারীর দ্বৈরথ যে আরও জোরদার হল, তা বলাই বাহুল্য। নিজেকে বার বার নন্দীগ্রামের ভূমিপুত্র বলে দাবি করেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। অন্যদিকে, এদিন তেখালির সভা থেকে নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীর উদ্দেশে একের পর এক তোপ দাগেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। স্মরণ করান নন্দীগ্রাম আন্দোলনকে। বলেন, "অনেকে অনেক বড় বড় কথা বলছেন! অনেক বাধা টপকে রাত ২টোয় যখন আমি নন্দীগ্রামে পৌঁছই , তখন এখানে আমি কাউকে দেখতে পাইনি। নন্দীগ্রাম (Nandigram) আন্দোলন কে করেছে, কারা করেছে সবাই জানে! নন্দীগ্রামের প্রতিটা কোণ আমার চেনা।" আরও বলেন, "কেউ কেউ এদিক ওদিক করছেন, কিন্তু চিন্তার কিছু নেই। তৃণমূল তৈরির সময় এরা ছিল না। জমি আন্দোলনের সময়ও এরা ছিল না... আমি টাকা দিতাম। ওরা বলত, ওরা কাজ করছে! কিন্তু আমি টাকা দিলেও অনেক কাজ হয়নি। এবার থেকে আমি নিজেই দেখে নেব।" 

এরপরই এদিনের সভা থেকে একুশের বিধানসভা ভোটে নন্দীগ্রাম (Nandigram) আসনে তিনি নিজেই লড়বেন বলে স্পষ্ট ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। নাম না করে শুভেন্দু অধিকারীকে (Suvendu Adhikari) সরাসরি চ্যালেঞ্জ ছোড়েন তৃণমূল সুপ্রিমো। আর তারপরই রাজ্য-রাজনীতিতে শুরু হয়ে গিয়েছে জোর তরজা। বিরোধী থেকে বিশেষজ্ঞ মহল, কেউ বলছেন 'মমতার মাস্টারস্ট্রোক'। আবার কেউ কটাক্ষ করেছেন, 'ভবানীপুরে ভিত নড়বড়ে,' তাই নিজেকে প্রমাণের তাগিদেই নন্দীগ্রামকে বেছে নিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী। যদিও নন্দীগ্রামের পাশাপাশি ভবানীপুরেও তিনি প্রার্থী হতে পারেন, দুই কেন্দ্র থেকেই তিনি লড়তে পারেন, এমন সম্ভাবনার কথাও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

এদিন মমতা নিজেকে নন্দীগ্রাম আসনের প্রার্থী ঘোষণা করতেই রাজনীতিবিদ থেকে বিশেষজ্ঞরা প্রতিক্রিয়া জানান। কে কী বললেন, দেখে নেব একনজরে-

শমীক ভট্টাচার্য, বিজেপি:
"ভবানীপুরে পাল্টা চমক দেবে বিজেপি (BJP)।"  

সুজন চক্রবর্তী, সিপিআইএম :
"ভবানীপুরে উনি জিততে পারবেন না। তাই নন্দীগ্রাম (Nandigram) থেকে লড়ছেন মমতা। এটা মমতার (Mamata Banerjee) হার স্বীকার।"

শমীক লাহিড়ি, সিপিআইএম :
"মমতা তো গতবার-ই ভবানীপুর থেকে হেরে যেতেন। যদি RSS-এর সাহায্য না পেতেন! ভোট না পেতেন! এখন উনি যে কেন্দ্রে থেকেই দাঁড়ান না কেন, মানুষের মনে ওঁর নামে Go Back স্লোগান লেখা হয়ে গিয়েছে। ভবানীপুর থেকে পালিয়ে যেখান থেকেই দাঁড়ান না কেন, মানুষ জানতে চায় পরিবারের সম্পত্তি বাড়ানো ছাড়া শিল্প হল কই? চাকরি কই?"

আব্দুল মান্নান, কংগ্রেস :
"শুভেন্দু অনেকটাই আতঙ্ক তৈরি করেছে। ১৪ বছর বাদে উনি যাওয়ার কথা ভাবলেন। ওনার শেষ ইচ্ছে কী, কেউ জানেন না!"

উদয়ন বন্দ্যোপাধ্যায়, রাজনৈতিক বিশ্লেষক
"এবার লড়াইটা আর তৃণমূল-বিজেপি রইল না। লড়াইটা মমতা (Mamata Banerjee) বনাম শুভেন্দুর (Suvendu Adhikari) হয়ে গেল।"

শিবাজীপ্রতিম বসু, রাজনৈতিক বিশ্লেষক
"ভবানীপুর থেকে উনি পালিয়ে যাচ্ছেন এটা বলা যাবে না। উনি তো বলেছেন ২৯৪টা আসনেই উনি প্রার্থী।"

এদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নন্দীগ্রাম থেকে ভোটে দাঁড়ানোর কথা ঘোষণা করায় খুশি সেখানকার তৃণমূল (TMC) কর্মী-সমর্থক। তাঁরা বলেন, "মমতা ব্যানার্জি দাঁড়ানোয় আমরা সবাই খুশি। নন্দীগ্রামের জন্য তিনি অনেক করেছেন। শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) ভেবেছিলেন যে, অনেক আসন জিতে নেবেন! এখন কিছুই করতে পারবেন না। মানুষ তাঁকে ছুঁড়ে ফেলে দেবে।" 

আরও পড়ুন, 'একুশে নন্দীগ্রাম থেকে আমি-ই দাঁড়াব, নিরাশ করব না ভবানীপুরকেও'

চাল চোর, ত্রিপল চোর, এবার ভ্যাকসিন চোর সরকার : Kailash