close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে তৃণমূল কর্মীকে কুপিয়ে খুন

তুমুল বৃষ্টির মধ্যে প্রায় ঘণ্টা চারেক পর একটি ইট ভাটার সামনে রক্তাক্ত ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় বিশ্বজিতকে।

Updated: Aug 14, 2019, 10:37 AM IST
রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে তৃণমূল কর্মীকে কুপিয়ে খুন

নিজস্ব প্রতিবেদন: ভর সন্ধ্যায় রাস্তা থেকে তুলে নিয়ে গিয়ে তৃণমূল কর্মীকে কুপিয়ে খুনের অভিযোগ। ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য পূ্র্ব মেদিনীপুরের ভগবানপুরের পশ্চিমবাড় এলাকায়। মৃতের নাম বিশ্বজিত্ বাগ (৩০)।তিনি এলাকায় সক্রিয় তৃণমূল কর্মী বলেই পরিচিত।

 

নিমকবাড় এলাকার বাসিন্দা বিশ্বজিত্ মঙ্গলবার বিকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের মহাড় এলাকায় তাঁর মাসির বাড়ি গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ভাইকে ফিরে বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। পথে মহম্মদপুর এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার পশ্চিমবাড়ে কয়েকজন যুবক তাঁদের ঘিরে ধরে বলে অভিযোগ। বিশ্বজিতের ওপর চোটপাট করতে থাকে। তাঁর ভাই বাধা দিলে তাঁকে প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেয় বলে অভিযোগ।

এরপর বিশ্বজিতের মুখো কালো কাপড় বেঁধে টেনে হিঁচড়ে নিয়ে চলে যায় তারা। বাড়িতে ফিরে গোটা বিষয়টি পরিবারকে জানান তাঁর ভাই। শুরু হয় খোঁজ। তুমুল বৃষ্টির মধ্যে প্রায় ঘণ্টা চারেক পর একটি ইট ভাটার সামনে রক্তাক্ত ক্ষতবিক্ষত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায় বিশ্বজিতকে।

তাঁকে উদ্ধার করে ভগবানপুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিত্সকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের জেরেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে জানান চিকিত্সকরা।

টালিগঞ্জ থানায় হামলা: পিসির পর গ্রেফতার এবার ভাইপোও!

এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। জানা গিয়েছে, গত লোকসভা নির্বাচনের সময়েও বিশ্বজিতের ওপর হামলা হয়েছিল। কে বা কারা এই ঘটনায় জড়িত, তা খতিয়ে দেখছে পুলিস।

ঘটনায় বিজেপির দিকে অভিযোগ তুলেছে পরিবার। যদিও বিজেপির বক্তব্য, এটা নিঃসন্দেহে খুন, তবে নিজেদের দলের মধ্যে রেষারেষির কারণে খুন হয়েছেন বিশ্বজিত্। এর সঙ্গে বিজেপির কোন যোগ নেই।

তৃণমূলের ভগবানপুর ব্লক সভাপতি মদন পাত্র বলেন,  এটা রাজনৈতিক হিংসার বলি। বিজেপি গোটা এলাকা জুড়ে দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে।