জঙ্গলমহলে ঢোল-ধামসার ছন্দে বর্ণময় টুসু

সোমবার সারাদিন সেখানে টুসু উৎসবের আমেজ।

Updated By: Jan 18, 2021, 07:49 PM IST
জঙ্গলমহলে ঢোল-ধামসার ছন্দে বর্ণময় টুসু
ফাইল চিত্র।

নিজস্ব প্রতিবেদন: জঙ্গলমহলের আকাশ-বাতাসে এখন টুসুর বর্ণ-গন্ধ-গীতিছন্দের উদ্ভাস। সোমবার সারাদিন সেখানে টুসু উৎসবের আমেজ।

এই শীতের আমেজে ঝাড়গ্রামের (jhargram)আরণ্যক পরিবেশে টুসু উৎসব (tusu utsav)যেন এক অন্য মাত্রা পেয়ে যায়। শুরু হয় মকর সংক্রান্তির দিন। চলে দিনদশেক বা তারও বেশি। এবারেও মকর সংক্রান্তির দিন শুরু হয়েছে এই উদযাপন। এখনও চলছে। বহু মানুষ অংশ নিচ্ছেন এতে। 

মকর-পরব ঝাড়গ্রামের এক ঐতিহ্যবাহী উৎসব। এই পরবকে ঘিরে নানা ধরনের মেলা ও উৎসব হয় জঙ্গলমহল জুড়ে। এই মকর-পরবে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে ঝাড়গ্রামে একদিনের টুসু মেলাও করা হয়। 'কুর্মী ডেভেলপমেন্ট বোর্ড' এই মেলার আয়োজন করে। ঝাড়গ্রামের প্রাক্তন সাংসদ ড. উমা সরেনের (uma soren)নেতৃত্বে হিন্দু মিশন মাঠ থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ঝাড়গ্রাম শহর পরিক্রমা করে। ঢোল, ধামসা, টুসু গানে মেতে ওঠে ঝাড়গ্রাম। ঝাড়গ্রামের রবীন্দ্রপার্কে সারদিন চলল টুসু এবং ঝুমুর। প্রাক্তন সাংসদকে ঘিরে মহিলাদের উৎসাহও ছিল চোখে পড়ার মতো। 

এ সময়ে জেলা জুড়েই বিভিন্ন গ্রামীণ মেলা অনুষ্ঠিত হয়। জামবনির বামুনডিহায় এরকমই এক মেলা পরিচালনার ভার তুলে নিয়েছেন মহিলারা। গোটা মেলাতেই মহিলাদের প্রাধান্য চোখে পড়ার মতো। উমা সরেন উদ্বোধন করেন মেলার। ছিলেন এলাকার বিধায়ক ও বিশিষ্টজন। আগামী তিনদিন ধরে চলবে মেলাটি। জঙ্গলমহল জুড়ে এখন শুধুই উৎসবের মেজাজ।

Also Read: 'আমাদের দেখুন, নইলে আত্মহত্যা করতে হবে,' প্ল্যাকার্ড হাতে বিক্ষোভ মুখ্যমন্ত্রীর সভায়