ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাতের পরই মোটা অঙ্কের আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস পেলেন ইমরান খান

মার্কিন আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, পাকিস্তানের উপর সামরিক আর্থিক সহায়তায় যে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা বহাল থাকবে

Updated By: Jul 27, 2019, 02:02 PM IST
ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাতের পরই মোটা অঙ্কের আর্থিক সাহায্যের আশ্বাস পেলেন ইমরান খান
ছবি-টুইটার

নিজস্ব প্রতিবেদন: প্রথম বৈঠকেই বরফ গলল আমেরিকা-পাকিস্তানের সম্পর্কে। কয়েকদিন আগেই পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বৈঠক হয়। শুক্রবার, পেন্টাগন মার্কিন কংগ্রেসে এক প্রস্তাব দিয়ে জানায় পাকিস্তানকে ১২.৫০ কোটি ডলার সামরিক সহায়তা করবে আমেরিকা। যার ফলে পাক যুদ্ধ বিমান এফ-১৬-এর ২৪ ঘণ্টা রক্ষণাবেক্ষণ সুযোগ মিলবে।

মার্কিন আধিকারিকরা জানাচ্ছেন, পাকিস্তানের উপর সামরিক আর্থিক সহায়তায় যে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে তা বহাল থাকবে। সন্ত্রাসবাদ ইস্যুতে কঠোর পদক্ষেপ না করায় ২০১৮ সালে জানুয়ারিতে শাস্তি হিসাবে পাকিস্তানের উপর এই নিষেধাজ্ঞা চাপান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে, এ দিনের প্রস্তাবে এফ-১৬ রক্ষণাবেক্ষণে কিছুটা সুবিধা মিলবে ইসলামাবাদের।

আরও পড়ুন- অজিত দোভাল কাশ্মীর থেকে ফিরতেই ১০ হাজার জওয়ান মোতায়েন উপত্যাকায়

উল্লেখ্য, গত ২২ জুলাই আমেরিকায় গিয়ে প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাত্ করেন ইমরান খান। পাকিস্তানে অভ্যন্তরীণ সমস্যা, সন্ত্রাসবাদ, আফগানিস্তানের সমস্যা-সহ একাধিক বিষয়ে তাঁদের আলোচনা হয়। উঠে আসে কাশ্মীর প্রসঙ্গও। কাশ্মীরের সমস্যা সমাধানে ট্রাম্পের হস্তক্ষেপ দাবি করেন পাক প্রধানমন্ত্রী। সে সময় বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, কাশ্মীর সমস্যা সমাধানে মার্কিন প্রেসিডেন্ট্রে হস্তক্ষেপ দাবি করেছিলেন নরেন্দ্র মোদী। তুমুল বিতর্ক তৈরি হওয়ার পর ওই মন্তব্য প্রত্যাহার করতে বাধ্য হয় হোয়াইট হাউজ।