ভারত ফের হামলা চালাতে পারে, আতঙ্কে রাতে ঘুম হচ্ছে না পাকিস্তানের

পাকিস্তানে ইমরান খানের সরকারের বিদেশমন্ত্রী মেহমুদ কুরেশি। তিনিই রবিবার পাকিস্তানের আতঙ্কের কথা সামনে এনেছেন। তাঁর দাবি, চলতি এপ্রিলের ১৬ থেকে ২০ তারিখের মধ্যে ফের হামলা চালাতে পারে ভারত।

Updated By: Apr 7, 2019, 11:51 PM IST
ভারত ফের হামলা চালাতে পারে, আতঙ্কে রাতে ঘুম হচ্ছে না পাকিস্তানের

নিজস্ব প্রতিবেদন: বালাকোটের আতঙ্ক এখনও কাটেনি পাকিস্তানের। বরং তারা মনে করছে ভারত একই ধরনের হামলা আবারও করতে পারে। এ নিয়ে ইমরান খানের সরকার এতটাই আতঙ্কিত যে, সেকথা তারা জানিয়ে দিয়েছে।

পাকিস্তানে ইমরান খানের সরকারের বিদেশমন্ত্রী মেহমুদ কুরেশি। তিনিই রবিবার পাকিস্তানের আতঙ্কের কথা সামনে এনেছেন। তাঁর দাবি, চলতি এপ্রিলের ১৬ থেকে ২০ তারিখের মধ্যে ফের হামলা চালাতে পারে ভারত।

প্রসঙ্গত, ভারতে সন্ত্রাসবাদী হামলার পাল্টা হিসেবে মোদী জমানায় দু’বার পাকিস্তানের উপর প্রত্যাঘাত করা হয়েছে। ২০১৬ সালে কাশ্মীরের উরির সেনা ক্যাম্পে জঙ্গি হামলার পর পাকিস্তানের অধিকৃত কাশ্মীরে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছিল ভারতীয় সেনাবাহিনী।

আরও পড়ুন: MAKE IN INDIA-য় তৈরি ‘দেশি বোর্ফস’ সোমবার হাতে পাচ্ছে সেনাবাহিনী

চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় সিআরপিএফ কনভয়ে জঙ্গি হামলা হয়। তারই পাল্টা ২৬ ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানের বালাকোটে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা। ওই এয়ার স্ট্রাইকে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয় পাকিস্তানের মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন জইশ-ই-মহম্মদের সবচেয়ে বড় ঘাঁটি।

তার পর দু’দেশের সীমান্তে উত্তেজনা বেড়েছে। কাশ্মীরে নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপার থেকে পাকিস্তানের হামলাও বেড়েছে। এমনকী ভারতের আকাশসীমায় পাকিস্তানের যুদ্ধবিমানও ঢুকে পড়েছিল। ছোড়া হয়েছিল অ্যামরাম ক্ষেপণাস্ত্রও।

আরও পড়ুন: দেশজুড়ে কংগ্রেসের হয়ে প্রচারে নামবেন রবার্ট বঢরা

কাশ্মীরে লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের বিরুদ্ধে ধরপাকড় অভিযান চালাচ্ছে ভারতীয় সেনা। ওই অভিযানে জঙ্গিরা ধরাও পড়ছে। আবার গুলির লড়াইয়ের জেরে মরতেও হচ্ছে অনেক জঙ্গিকে।

এই পরিস্থিতিতে ভারত কি সত্যিই পাকিস্তানের উপর হামলার ছক কষছে? যুদ্ধবিশারদের বক্তব্য, সার্জিক্যাল স্ট্রাইক বা এয়ার স্ট্রাইকের মতো হামলার ছক অত্যন্ত গোপনে করা হয়। সেই কারণেই হামলার পর বিষয়টি প্রকাশ্যে আসে। আগে থেকে জানিয়ে এমন হামলা হয় না। উরি বা পুলওয়ামা পরবর্তী প্রত্যাঘাতের পরই সবাই বিষয়টি জানতে পেরেছিলেন।

আরও পড়ুন: ভিডিয়ো: এক প্লেট বিরিয়ানির জন্য ভোটপ্রচারে লাঠালাঠি কংগ্রেস কর্মীদের

তাই প্রশ্ন উঠছে, পাকিস্তানের কাছেই বা কী করে গেল এমন তথ্য? তা অবশ্য জানাতে চাননি পাকিস্তানের বিদেশমন্ত্রী মেহমুদ কুরেশি। তিনি জানিয়েছেন, অত্যন্ত বিশ্বস্ত সূত্রে তাঁদের কাছে এই খবর এসে পৌঁছেছে।

সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ও এয়ার স্ট্রাইক হয়েছিল সন্ত্রাসবাদী হামলার পর। উরি ও পুলওয়ামায় জইশ-ই-মহম্মদ হামলা চালিয়েছিল। তাই সেই কারণেই জইশকে শিক্ষা দিতেই পাল্টা প্রত্যাঘাত করেছিল ভারত।

আরও পড়ুন: Mission Shakti: ক্ষেপণাস্ত্র দিয়ে উপগ্রহ ধ্বংস করার ভিডিয়ো প্রকাশ করল DRDO

সেইরকম কোনও ঘটনা ঘটেনি। তাহলে কেন এমন আশঙ্কা করছে পাকিস্তান? স্বাভাবিকভাবেই প্রশ্ন উঠছে, তাহলে কি জঙ্গিরা ভারতে হামলা চালানোর কোনও পরিকল্পনা করছে? পাকিস্তান অবশ্য বলছে, ভারত চাইছে তাদের উপর চাপ বাড়াতে। সেই কারণেই হামলার পরিকল্পনা করছে।