পুরুলিয়ায় কিশোরীর দেহ সত্‌কার নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

পুরুলিয়ায় কিশোরীর দেহ সত্কার নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। স্থানীয় তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন কিশোরীর মা। মায়ের অভিযোগ, আত্মঘাতী হয় তাঁর মেয়ে। এরপর ওই নেতার পরামর্শেই তাঁরা বাধ্য হন মেয়ের দেহ সত্কার করতে। তাঁর হুমকির জেরেই সত্য গোপন করতে বাধ্য হয়েছিল কিশোরীর পরিবার। এমনই দাবি মায়ের।

Updated By: May 23, 2016, 08:22 PM IST
পুরুলিয়ায় কিশোরীর দেহ সত্‌কার নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ

ওয়েব ডেস্ক: পুরুলিয়ায় কিশোরীর দেহ সত্কার নিয়ে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ। স্থানীয় তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন কিশোরীর মা। মায়ের অভিযোগ, আত্মঘাতী হয় তাঁর মেয়ে। এরপর ওই নেতার পরামর্শেই তাঁরা বাধ্য হন মেয়ের দেহ সত্কার করতে। তাঁর হুমকির জেরেই সত্য গোপন করতে বাধ্য হয়েছিল কিশোরীর পরিবার। এমনই দাবি মায়ের।

একাধিকবার ধর্ষণ। আর তার জেরেই অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে পুরুলিয়ায় কিশোরী ছাত্রী। ছাত্রীর মায়ের অভিযোগে উঠে আসছে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান বাসুদেব দাস সহ আরও কয়েকজনের নাম। এরমধ্যে স্থানীয় যুবক নিমাই রাজওয়ারের নামেও অভিযোগ তুলছেন কিশোরীর মা।

তাঁর অভিযোগ, উপপ্রধান বাসুদেব দাসের স্ত্রী তাঁর বাড়িতে চড়াও হন। এরপরেই আত্মঘাতী হয় তাঁর মেয়ে। গত শনিবার প্রমাণ লোপাট করতে উপপ্রধান ও তার সঙ্গীরা গোপনে কিশোরীর দেহ সত্কার করে দেয়। উদ্ধার হয় তাঁর সদ্যোজাতের দেহ। পরিবারকে সত্য গোপন করার হুমকিও দেওয়া হয়। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করছেন অভিযুক্ত বাসুদেব দাসের স্ত্রী। ভাই নির্দোষ, এমনই দাবি অভিযুক্ত যুবক নিমাই রাজওয়ারের দাদার। বাসুদেব দাসের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ এর আগেও উঠেছে বলে জানাচ্ছেন বাসিন্দারা। এখনও পর্যন্ত বাসুদেব ও নিমাইয়ের কোনও খোঁজ পায়নি পুলিস।