অন্তঃসত্ত্বাকে মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে

দলের বিধায়কের বিরুদ্ধেই থানায় গিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন তৃণমূল কর্মীরা। সোনামুখির তৃণমূল বিধায়ক দীপালি সাহার বিরুদ্ধে অভিযোগ, অন্তঃসত্ত্বার ওপর হামলায় মদত দিয়েছেন তিনি।  দোষীদের শাস্তির দাবিতে আজ থানা ঘেরাও করেন তৃণমূলের মহিলা কর্মীরাই। বিধায়কের বিরুদ্ধে শ্লোগানও দেন তাঁরা।

Updated By: Dec 30, 2015, 08:24 PM IST
অন্তঃসত্ত্বাকে মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূল বিধায়কের বিরুদ্ধে
প্রতীকি ছবি

ওয়েব ডেস্ক: দলের বিধায়কের বিরুদ্ধেই থানায় গিয়ে বিক্ষোভ দেখালেন তৃণমূল কর্মীরা। সোনামুখির তৃণমূল বিধায়ক দীপালি সাহার বিরুদ্ধে অভিযোগ, অন্তঃসত্ত্বার ওপর হামলায় মদত দিয়েছেন তিনি।  দোষীদের শাস্তির দাবিতে আজ থানা ঘেরাও করেন তৃণমূলের মহিলা কর্মীরাই। বিধায়কের বিরুদ্ধে শ্লোগানও দেন তাঁরা।

মামুলি পারিবারিক বিবাদ। তারমধ্যেও ঢুকে পড়লেন এলাকার তৃণমূল বিধায়ক। অন্তঃসত্ত্বাকে মারধরের অভিযোগ উঠল বিধায়ক-অনুগামীদের বিরুদ্ধে। দাম্পত্য কলহের জেরে রবিবার রানীর বাজার এলাকার বাসিন্দা নিসার আনসারির  বাড়িতে চড়াও হয় ৩০-৪০ জন মহিলা। বাধা দিতে গিয়ে আক্রান্ত হন নিসারের অন্তঃসত্ত্বা দিদি সাহানা খাতুন। নিসার ও তাঁর  স্ত্রীর মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিবাদ চলছে । নিসারের স্ত্রী রুখসানার পরিবার বিধায়ক দীপালি সাহা ঘনিষ্ঠ।  নিসারের অভিযোগ, বিধায়কের মদতেই তাঁর অন্তঃসত্ত্বা দিদিকে মারধর করে  দীপালি অনুগামীরা।নেতৃত্ব দেন বিধায়ক দীপালি সাহার ঘনিষ্ঠ পুতুল গড়াই। নিসারের অভিযোগ, দীপালির প্রভাবেই অভিযোগ নিতেও গড়িমসি করছে সোনামুখি থানা।

অভিযুক্তের গ্রেফতারের দাবিতে বুধবার সোনামুখি থানা ঘেরাও করে মহিলা তৃণমূল কংগ্রেস কর্মীরা। বিধায়কের বিরুদ্ধে স্লোগান ওঠে। ঘটনার কড়া নিন্দা করে, দোষীদের শাস্তির দাবি করেছেন সোনামুখী পুরসভার চেয়ারম্যানও। দাঁড়িয়ে থেকে ছাপ্পা মারার নির্দেশ দিয়ে লোকসভা ভোটের সময় বিতর্কে জড়ান দীপালি সাহা। এবার আরও  এক  বিতর্কে জড়ালেন সোনামুখীর তৃণমূল বিধায়ক।