Javadekar-র সঙ্গে একঝাঁক তারকার বৈঠক, ইন্ডাস্ট্রির স্বাস্থ্য ফেরাতে ডাক পেল না EIMPA

এনএফডিসি ইমপার প্রোডিউসার, মেম্বার। ইন্ডাস্ট্রির কোন জায়গায় রয়েছে ইমপা, তা এনএফডিসির জানা উচিত বলেও মন্তব্য করেন পিয়া।

Updated By: Feb 23, 2021, 02:14 PM IST
Javadekar-র সঙ্গে একঝাঁক তারকার বৈঠক, ইন্ডাস্ট্রির স্বাস্থ্য ফেরাতে ডাক পেল না EIMPA
ক্ষোভ পিয়া সেনগুপ্তের

নিজস্ব প্রতিবেদন : ​সোমবার এনএফডিসি-র অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি EIMPA-কে। যা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন অভিনেত্রী পিয়া সেনগুপ্ত (Piya Sengupta)। তিনি বলেন, কেন ইমপাকে আমন্ত্রণ জানানো হল না, তা বুঝে উঠতে পারছেন না। ইমপাকে ছাড়া বাংলা ইন্ডাস্ট্রির কোনও অস্তিত্ব থাকতে পারে বলে মনে হয় না। সেই ইমপাকে আমন্ত্রণ জানানো হল না, কেন সংশ্লিষ্ট সংস্থার সভাপতিকেও কিছু জানানো হল না, তা নিয়ে ধন্দে অভিনেত্রী।

সোমবার এনএফডিসির অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের (Prakash Javadekar) সঙ্গে টালিগঞ্জের একঝাঁক কলাকুশলী দেখা করেন। বাংলা ইন্ডাস্ট্রির হাল ফেরাতে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে বসেন ঋতুপর্ণা, আবীর, পাওলিদের মতো প্রথম সারির অভিনেতারা। কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে টালিগঞ্জের শিল্পীদের যে বৈঠক হয়, সেখানে কোনও রাজনৈতিক রং ছিল কি? এমন প্রশ্নের উত্তরে পিয়া সেনগুপ্ত জানান, তাঁকে আমন্ত্রণ জানানো হয়নি। ফলে তিনি জানেন না, সেখানে কী বিষয়ে আলোচনা হয়। তবে ইন্ডাস্ট্রির কলাকুশলীদের নিয়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যে বৈঠক করেন, সেখানে অবশ্যই রাজনীতির কোনও বিষয় থাকতেই পারে। তবে ফিল্ম নিয়ে কোনও আলোচনা করতে গেলে, সেখানে ইমপা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সেই সংস্থাকে ছাড়া ওই বৈঠক কীভাবে হল, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন পিয়া। তবি বিষয়টি নিয়ে তিনি কোনও চিঠি চালাচালি করবেন না। ইন্ডাস্ট্রিতে ইমপার কী ভূমিকা রয়েছে, তা ভালভাবে জানে এনএফডিসি (NFDC)। তা সত্ত্বেও কেন এই ধরনের আচরণ করা হল, তা নিয়েও ক্ষোভ প্রকাশ করেন পিয়া। পাশাপাশি এনএফডিসি ইমপার প্রোডিউসার, মেম্বার। ইন্ডাস্ট্রির কোন জায়গায় রয়েছে ইমপা, তা এনএফডিসির জানা উচিত বলেও মন্তব্য করেন পিয়া।

আরও পড়ুন : জাভড়েকরের সঙ্গে এক মঞ্চে ঋতুপর্ণা, আবীর, পাওলিরা

অভিনেত্রী আরও বলেন, লকডাউনের সময় ইন্ডাস্ট্রির ভিতরে বিভিন্ন ধরনের যে সমস্যা হয়, সে বিষয়ে কেন্দ্রীয় সরকারকে তাঁরা জানিয়েছেন। ওই সময় বাবুল সুপ্রিয়কে নিয়ে ইমপাতে বৈঠকও করা হয়েছে। ইমপায় কোনও রাজনৈতিক রং নেই। তা সত্ত্বেও কেন তাঁদের আমন্ত্রণ জানানো হল, তা বুঝে উঠতে পারছেন না পিয়া।

২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচনের আগে দল বদলের পালা চলছে। সেই হাওয়া বইছে টলিউডেও (Tollywood)। ফলে হাওয়া কি ঘুরছে? এমন প্রশ্ন করা হলে পিয়া সেনগুপ্ত জানান, ইন্ডাস্ট্রি এখন দুভাগে ভাগ হয়ে গিয়েছে। টলি পাড়ার বেশ কিছু মানুষ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলে যোগ দিচ্ছেন কিন্তু ইন্ডাস্ট্রির উপর এর প্রভাব পড়তে দেওয়া উচিত নয় বলে মনে করেন অভিনেত্রী।

আরও পড়ুন : শঙ্কুর সঙ্গে 'চায়ে পে চর্চায়' অরিন্দম, BJP-তে যোগদানের জল্পনা ওড়ালেন পরিচালক

এদিকে সোমবার কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে একঝাঁক টলি তারকার বৈঠকে কেন ইমপাকে আমন্ত্রণ জানানো হল না, সে বিষয়ে এনএফডিসির কাছে জানতে হলে কোনও সদুত্তর মেলেনি এখনও পর্যন্ত।