দাবি ছিল একটা সেতুর, কথা রাখেনি কেউই, প্রতিবাদে ভোট বয়কট রায়গঞ্জের নিমতলার ৩৫০০ ভোটারের

পাঁচ মিনিটের পথ। ভরা বর্ষায় তাই পেরোতে লাগে প্রায় তিনঘণ্টা। সেই কারণেই , নাগর নদীতে একটি পাকা সেতু চেয়েছিলেন রায়গঞ্জের নিমতলা ভিটিয়া গ্রামেরা বাসিন্দারা। বছর বছর প্রতিশ্রুতি দিয়েও কেউ কথা রাখেনি। এবার তাই ভোট দিলেন না সাড়ে তিন হাজার মতদাতা।

Updated By: Apr 24, 2014, 08:28 PM IST

পাঁচ মিনিটের পথ। ভরা বর্ষায় তাই পেরোতে লাগে প্রায় তিনঘণ্টা। সেই কারণেই , নাগর নদীতে একটি পাকা সেতু চেয়েছিলেন রায়গঞ্জের নিমতলা ভিটিয়া গ্রামেরা বাসিন্দারা। বছর বছর প্রতিশ্রুতি দিয়েও কেউ কথা রাখেনি। এবার তাই ভোট দিলেন না সাড়ে তিন হাজার মতদাতা।

নাগর নদী পেরিয়ে উত্তর দিনাজপুরের মূল জনস্রোতে মিশতে এই বাঁশের সাঁকোই ভরসা। যা বর্ষাকালে হয়ে ওঠে যাতায়াতের অসাধ্য।

সাঁকো ব্যবহার না করতে পারলে ঘুরে যেতে হয় প্রায় পনেরো কিলোমিটার রাস্তা। তাই গত কয়েকদশক ধরেই পাকা সেতুর দাবি জানিয়ে আসছেন নিমতলা ভিটিয়ার বাসিন্দারা। এবং প্রতিবারই প্রতারিত হয়েছেন।

সেতুর দাবিতে ভোট বয়কট করেছেন গ্রামবাসী। সাড়ে তিন হাজার ভোটদাতার অনুপস্থিতি টের পাওয়া গেল ভোটকেন্দ্রেও।