স্মার্টফোন এবং টিভি দেখার কারণে শিশুদের মধ্যে ডায়াবিটিসের সম্ভাবনা বাড়ে

এই প্রজন্মের বাচ্চারা ছোট থেকেই মারাত্মক অ্যাডভান্স। তারা ছেলেবেলা থেকেই বিভিন্ন যন্ত্রপাতি যেমন, টিভি, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট প্রভৃতি চালাতে শিখে যায় নিজে থেকেই। এর থেকেই বোঝা যায়, তাদের মস্তিষ্ক ঠিক কতটা উন্নত। বড়রাও বাচ্চাদের হাতে স্মার্টফোন ছেড়ে দেন, বাচ্চারা তথ্যপ্রযুক্তিতে উন্নত হচ্ছে এই ভেবে। পড়াশোনা চাপে এমনিতেই তাদের হাতে খেলার জন্য সময় নেই। যেটুকু সময় তারা পায়, সেই সময়টাও তারা বাড়িতে কিংবা বাড়ির বাইরে খেলতে না গিয়ে, স্মার্টফোন কিংবা ট্যাবলেট কিংবা টিভিতে ভিডিওগেম জাতীয় খেলায় মেতে ওঠে। তাই তাদের শারীরিক কোনও কসরতই হয় না। সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে, যে সমস্ত বাচ্চারা স্মার্টফোন কিংবা টিভিতে অনেকটা সময় কাটায়, তাদের মধ্যে ডায়াবিটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

Updated By: Mar 14, 2017, 03:16 PM IST
স্মার্টফোন এবং টিভি দেখার কারণে শিশুদের মধ্যে ডায়াবিটিসের সম্ভাবনা বাড়ে

ওয়েব ডেস্ক: এই প্রজন্মের বাচ্চারা ছোট থেকেই মারাত্মক অ্যাডভান্স। তারা ছেলেবেলা থেকেই বিভিন্ন যন্ত্রপাতি যেমন, টিভি, স্মার্টফোন, ট্যাবলেট প্রভৃতি চালাতে শিখে যায় নিজে থেকেই। এর থেকেই বোঝা যায়, তাদের মস্তিষ্ক ঠিক কতটা উন্নত। বড়রাও বাচ্চাদের হাতে স্মার্টফোন ছেড়ে দেন, বাচ্চারা তথ্যপ্রযুক্তিতে উন্নত হচ্ছে এই ভেবে। পড়াশোনা চাপে এমনিতেই তাদের হাতে খেলার জন্য সময় নেই। যেটুকু সময় তারা পায়, সেই সময়টাও তারা বাড়িতে কিংবা বাড়ির বাইরে খেলতে না গিয়ে, স্মার্টফোন কিংবা ট্যাবলেট কিংবা টিভিতে ভিডিওগেম জাতীয় খেলায় মেতে ওঠে। তাই তাদের শারীরিক কোনও কসরতই হয় না। সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে যে, যে সমস্ত বাচ্চারা স্মার্টফোন কিংবা টিভিতে অনেকটা সময় কাটায়, তাদের মধ্যে ডায়াবিটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।

টাইপ টু ডায়াবিটিস হল এমন একটি অসুখ, যা রক্তে গ্লুকোজের পরিমান বাড়িয়ে দেয়। অস্বাস্থ্যকর খাবারের অভ্যাস, প্রয়োজনের তুলনায় কম শরীরচর্চা, এছাড়াও বংশগত কারণেও ডায়াবিটিস হতে পারে। এতদিন এই অসুখ প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে দেখা যেত। কিন্তু সম্প্রতি একটি সমীক্ষায় এই অসুখ বাচ্চাদের মধ্যেও প্রচুর পরিমানে দেখা যাচ্ছে।

আরও পড়ুন জাগ্গা জাসুস রিলিজ হতে দেরির কারণ জানেন?

সমীক্ষায় বলা হচ্ছে যে, এখনকার বাচ্চারা খেলার মাঠে সময় কাটানোর থেকে অনেক বেশি স্মার্টফোন, ট্যাবলেট, কম্পিউটার এবং টিভিতে সময় কাটায়। এর ফলে তাদের শরীরে ফ্যাট এবং ইনসুলিনের মাত্রা বেড়ে যায়। প্রায় সাড়ে ৪ হাজার শিশুর উপর করা সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, যে সমস্ত বাচ্চারা সারাদিনে ২ ঘণ্টার বেশি সময় স্মার্টফোন, কম্পিউটার, ট্যাবলেট, টিভির স্ক্রিনে সময় কাটিয়েছে, তাদের মধ্যে টাইপ টু ডায়াবিটিসের পরিমান বেশি দেখা গিয়েছে।

তাই অভিভাবকেরা শিশুদের ডায়াবিটিসহীন সুস্থ জীবন দিতে স্মার্টফোন কিংবা কম্পিউটার কিংবা টিভি স্ক্রিনে সময় কাটানো বন্ধ করুন। তাদের খেলার মাঠে পাঠান।

আরও পড়ুন ধোনি অবসর প্রসঙ্গে তাঁর ছেলেবেলার কোচ যা বললেন