বিরোধীদের ৪ প্রশ্ন থেকে রেহাই পেতেই অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হচ্ছে, দাবি ডেরেকের

বিরোধীদের মুখোমুখি হতে পারছে না সরকার। তাই রাজ্যসভার অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার এমনই অভিযোগ তুললেন রাজ্যসভায় তৃণমূলের সাংসদ ডেকের ও’ব্রায়েন।

Updated By: Nov 20, 2019, 10:28 AM IST
বিরোধীদের ৪ প্রশ্ন থেকে রেহাই পেতেই অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হচ্ছে, দাবি ডেরেকের

নিজস্ব প্রতিবেদন: বিরোধীদের মুখোমুখি হতে পারছে না সরকার। তাই রাজ্যসভার অধিবেশন মুলতুবি করে দেওয়া হচ্ছে। মঙ্গলবার এমনই অভিযোগ তুললেন রাজ্যসভায় তৃণমূলের সাংসদ ডেকের ও’ব্রায়েন।

আরও পড়ুন-মদনমোহন মন্দিরে 'মা-মাটি-মানুষ' গোত্রে পুজো দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

সোমবারের মতো মঙ্গলবারও উত্তাল হয়ে ওঠে রাজ্যসভা। স্লোগান-বিক্ষোভে তোলপাড় হয়ে ওঠে সংসদের উচ্চকক্ষ। এরপরেই দুপুর দুটো পর্যন্ত সভার কাজ মুলতুবি করে দেন চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু।

সংসদ মুলতুবি করা নিয়ে সরব হয়েছেন ডেরেক। তিনি টুইট করেন, ‘রাজ্যসভার একজন সাংসদও ওয়েলে নেমে বিক্ষোভ দেখাননি। তারপরেও কয়েক মিনিটের মধ্যেই দুপুর ২টো পর্যন্ত সভা মুলতুবি করে দেওয়া হয়। গুরুত্বপূর্ণ কিছু ইস্যু সংসদে তুলতেই দেওয়া হচ্ছে না বিরোধীদের। সংশ্লিষ্ট মন্ত্রীদের কোনও প্রশ্নই করতে পারল না বিরোধীরা। যখন কোনও উত্তর থাকে না তখনই আপনি পালিয়ে যান।’

আরও পড়ুন-কার্তিক ঠাকুর রেখে যাওয়ায় বচসা, বাড়িমালিককে গাছে বেঁধে পিটিয়ে খুন করল পড়শি যুবকরা

ডেরেকে আরও যু্ক্তি, মূলত ৪ প্রশ্নের জন্যই পালিয়ে বেড়াচ্ছে সরকার। মন্ত্রীদের মুখোমুখি হতে দেওয়া হচ্ছে না সাংসদদের। ওই চারটি প্রশ্ন হল, নোট বাতিলের পরও কীভাবে টাকা মজুত করা হচ্ছে, পিএমসি ব্যাঙ্ক জালিয়াতি, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কে জালিয়াতি হচ্ছে কীভাবে ও সরকারি সংস্থাগুলোকে বেচে দেওয়া হচ্ছে কার স্বার্থে। এইসব প্রশ্নের উত্তর চায় বিরোধীরা। কোনও উত্তর না থাকার কারণেই পালিয়ে বেড়াচ্ছে সরকার।