close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

‘পরিস্থিতি খুবই খারাপ, পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মানুষই একদিন কাশ্মীরে যোগ দেওয়ার দাবি জানাবেন’

পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ইমরান খানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের পর সেখানে আরও বড় কিছু হওয়ার আশঙ্কা করছেন কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক

Updated: Sep 15, 2019, 07:16 AM IST
‘পরিস্থিতি খুবই খারাপ, পাক অধিকৃত কাশ্মীরের মানুষই একদিন কাশ্মীরে যোগ দেওয়ার দাবি জানাবেন’

নিজস্ব প্রতিবেদন: পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ইমরান খানের বিরুদ্ধে বিক্ষোভের পর সেখানে আরও বড় কিছু হওয়ার আশঙ্কা করছেন কাশ্মীরের গভর্নর সত্যপাল মালিক। শনিবার তিনি বলেন, ওখানকার পরিস্থিতি এতটাই খারাপ যে সেখান থেকে দলে দলে মানুষ কাশ্মীরে চলে আসবে। এমন একদিন আসবে যখন তারা নিজেরাই কাশ্মীরে যোগ দিতে চাইবে।

আরও পড়ুন-নয়াদিল্লিতে দিনভর এসসিও-র বৈঠক এড়ানোর পর সন্ধেয় নৈশভোজে হাজির পাক কর্তারা

শনিবার জম্মুতে এক ক্যান্সার হাসপাতালের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে ভাষণ দিচ্ছিলেন সত্যপাল মালিক। সেখানেই তিনি ওই কথা বলেন। এদিন তিনি বলেন, দেশের মানুষের চোখে রাজ্যপাল এমন একজন মানুষ যিনি শুধু গলফ খেলে, আরাম করে কাটান। সাধারণ মানুষের জন্য কিছু করেন না। কিন্তু গত এক বছরে আমরা যে উন্নযনের কাজ করেছি তা কোনও নির্বাচিত সরকার করেনি। প্রধানমন্ত্রী আমাকে এখানে ব্যাপক উন্নয়ন করার কথা বলেছেন।

আরও পড়ুন-পাক অধিকৃত কাশ্মীরে খোদ প্রধানমন্ত্রীর সভাতেই উঠল ‘গো ব্যাক ইমরান’ স্লোগান

অন্যদিকে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জিতেন্দ্র সিং বলেন, কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পর মোদীর সরকারের এখন লক্ষ্য হল পাক অধিকৃত কাশ্মীর ভারতের অন্তর্ভুক্ত করা। আর কাশ্মীরে মানুষের সমস্যার বোঝার জন্য একেবারে তৃণমূল পর্যায়ের মানুষের সঙ্গে কথা বলছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

আরও পড়ুন-ভিডিয়ো: কাশ্মীরে সীমান্তে গোলাগুলি পাকিস্তানের, শিশুদের উদ্ধার করল ভারতীয় সেনা

উল্লেখ্য, গত ৫ অগাস্ট জম্মু ও কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পাশাপাশি রাজ্যকে দুটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভাগ করে কেন্দ্র। তখন থেকেই রাজ্যের পরিস্থিতি উত্তপ্ত। রাজ্যের অধিকাংশ নেতা এখনও গৃহবন্দি। জনজীবন এখনও সম্পূর্ণ স্বাভাবিক হয়নি বলেই বিদেশি সংবাদমাধ্যমে দাবি উপত্যকার মানুষদের।