রাতারাতি ক্যাপ্টেন হয়ে যাইনি আমি, অশ্বিনকে হঠাৎ এমন কথা বললেন কেন কোহলি?

জীবনের সেরা মুহূর্ত নিয়েও কথা বললেন কোহলি। বললেন, ঢাকায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে 183 রানের ইনিংসটা আমার কাছে স্পেশাল।

Reported By: সুমন মজুমদার | Updated By: May 31, 2020, 02:18 PM IST
রাতারাতি ক্যাপ্টেন হয়ে যাইনি আমি, অশ্বিনকে হঠাৎ এমন কথা বললেন কেন কোহলি?

নিজস্ব প্রতিবেদন: মহেন্দ্র সিং ধোনির উত্তরসূরী। তাই তিনি সবসময় আতস কাঁচের নিচে থাকেন। একটু এদিক ওদিক হলেই তাঁকে সমালোচনা হজম করতে হয়। কিন্তু বড় তারকারা এসব সমালোচনা গায়ে মেখে চলেন। তাতে তাঁদের অসুবিধা হয় না। আর বিরাট কোহলি বারবার স্বীকার করেছেন, তাঁর এই উত্থানের পেছনে ধোনির অনেক বড় ভূমিকা রয়েছে। যখনই সুযোগ পান কোহলি বলেন, ধোনি তাঁকে যে কোনও পরিস্থিতিই সাহায্য করেছেন। আর ধোনির জুতোয় পা গলিয়ে তাঁর দায়িত্ব বেড়েছে কয়েক গুণ। রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সঙ্গে ইনস্টাগ্রাম লাইভ আড্ডায় বসেছিলেন কোহলি। সেখানেই উঠল তাঁর ক্যাপ্টেন্সি ও দায়িত্বের প্রসঙ্গ। কথায় কথায় চলে এলেন ধোনিও। কোহলি বললেন, তিনি বিশ্বাস করেন তাঁর ক্যাপ্টেন হয়ে ওঠার পেছনে ধোনি ভাইয়ের অবদান রয়েছে।

কোহলি বলছিলেন, "রাতারাতি ক্যাপ্টেন হয়ে যাইনি আমি। নির্বাচকরা আমার ওপর আস্থা রেখেছিলেন। আর আমার মনে হয়, আমাকে ক্যাপ্টেন করার আগে নির্বাচকরা ধোনি ভাইয়ের সঙ্গে আলোচনা করেছিলেন। আমার ক্যাপ্টেন হওয়ার পেছনে ধনী ভাইয়ের অবদান রয়েছে। ভারতীয় দলের আসার পর থেকেই আমি ধোনি ভাইয়ের সঙ্গে যে কোনও ব্যাপারে পরামর্শ করেছি। আমার কোনও আইডিয়া ধোনি ভাইয়ের পছন্দ হলে সেটা নিয়ে আমাদের মধ্যে আলোচনা হয়েছে। আমি সবসময় ওর থেকে শিখতে চেষ্টা করেছি।  ধোনি ভাই সবসময় আমাকে বোঝার চেষ্টা করেছে। আমার সঙ্গে এতদিন খেলার পর ওঁর হয়তো মনে হয়েছে, টিমের পরবর্তী ক্যাপ্টেন হওয়ার যোগ্যতা আমার আছে।"

আরও পড়ুন: শামির সঙ্গে ছবি পোস্ট করলেন হাসিন জাহান, স্বামী - স্ত্রীর বিবাদ কি মিটে গেল!

জীবনের সেরা মুহূর্ত নিয়েও কথা বললেন কোহলি। বললেন, ঢাকায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে 183 রানের ইনিংসটা আমার কাছে স্পেশাল। তাছাড়া ওই ম্যাচে আমি সচিন পাজির সঙ্গে ব্যাটিং করেছিলাম।  ওইদিন সচিন পাজি পঞ্চাশ করেছিল। আমরা দুজনে মিলে একশো রানের বেশি পার্টনারশিপ খেলেছিলাম।  উমর গুল, এজাজ চিমা, শাহিদ আফ্রিদি, সাঈদ আজমলের মতো বোলারদের বিরুদ্ধে ব্যাটিং করাটা সহজ ছিল না ওই ইনিংস আমার কেরিয়ারে উল্লেখযোগ্য। সেদিন সচিন পাজির সঙ্গে ব্যাটিং করাটাও আজীবন মনে থাকে। মনে হচ্ছিল যেন জীবনের সব থেকে বড় স্বপ্ন পূরণ হল।  উল্লেখ্য, 2014 সালে অস্ট্রেলিয়া সফরে ধোনি টেস্ট ক্যাপ্টেন্সি ছাড়ার সিদ্ধান্ত জানান।।তারপর কোহলি ক্যাপ্টেন হন। এরপর 2018 সালে কোহলির নেতৃত্বে ভারতীয় দল অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে প্রথমবার টেস্ট সিরিজ জিতেছিল। 2017 থেকে সীমিত ওভারের ক্রিকেটে জাতীয় দলের ক্যাপ্টেন হন কোহলি।  তাঁর নেতৃত্বে ভারতীয় দল এখনও পর্যন্ত একশ সতেরোটি ম্যাচ জিতেছে।  প্রসঙ্গত ধোনির নেতৃত্বে ভারতীয় দল জিতেছে একশো আটাত্তর টি ম্যাচ।