ISL 2021: জঘন্য ডিফেন্স, ৬-৪ গোলের লজ্জা নিয়ে Odisha FC-র কাছে উড়ে গেল SC East Bengal

এসসি ইস্টবেঙ্গল সেই তিমিরেই! ডার্বির পর ওডিশার কাছেও হাফ ডজন খেল লাল-হলুদ।   

Updated By: Nov 30, 2021, 09:50 PM IST
ISL 2021: জঘন্য ডিফেন্স,  ৬-৪ গোলের লজ্জা নিয়ে Odisha FC-র কাছে উড়ে গেল SC East Bengal
গোল করার পর আরিদাইয়ের উল্লাস। ছবি: আইএসএল

নিজস্ব প্রতিবেদন: ডার্বি যুদ্ধে ৩-০ ব্যবধানে হেরে যাওয়ার হ্যাংওভার থেকে এখনও বেরিয়ে আসতে পারেনি এসসি ইস্টবেঙ্গল (SC East Bengal)। মঙ্গলবার গোয়ার তিলক ময়দানে ওডিশা এফসি-র (Odisha FC) ৬-৪ ব্যবধানে উড়ে গিয়ে আরও একরাশ লজ্জা 'উপহার' দিল হোসে মানুয়েল দিয়াজের (Jose Manuel Diaz) দল। দুর্বল ডিফেন্স ও মাঝমাঠের সঙ্গে রক্ষণের বোঝাপড়ার অভাবের জন্য এটিকে মোহনবাগানের কাছে হেরে গিয়েছিল লাল-হলুদ। এই ম্যাচেও দেখা গেল লাল-হলুদের সেই একই গোল। সেই সুযোগে শতবর্ষে পা রাখা ক্লাবকে গোলের মালা পরিয়ে গেল পাশের রাজ্যের দল। 

শুরুতে গোল করে বেশ ভালই এগিয়ে যাচ্ছিল লাল-হলুদ। ১৩ মিনিটে একটি থ্রো থেকে অসাধারণ গোলটি করেন ড্যারেন সিডোয়েল (Darren Sidoel)। নবম ডাচ প্লেয়ার হিসেবে আইএসএলে গোল করলেন সিডোয়েল। ১-০ এগিয়ে গিয়েছিল মানুয়েল দিয়াজের দল। 

কিন্তু তাতে কি! কিন্তু এরপরই শুরু হয় ওডিশার সংহার লীলা। একে একে চারটি গোল করলেন ওড়িশার ফুটবলাররা।৩৩ মিনিটে ফ্রি-কিক থেকে আসা হাভির শট ধরে সমতা ফেরালেন ওডিশার হেক্টর রোডাস (Hector Rodas)। খেলার ফল ১-১। গত ম্যাচের মতো এ বারও হতশ্রী ডিফেন্স। গত মরসুম থেকে এই বছরের ম্যাচ ধরলে শেষ ১১টি ম্যাচে টানা ইস্টবেঙ্গল কিন্তু গোল খেয়ে গিয়েছে। রক্ষণের অবস্থা কিন্তু গত বারের মতোই এ বারও হতশ্রী। 

আরও পড়ুন: ISL 2021: জেতার জন্য প্রয়োজনে আরও আক্রমণাত্মক হয়ে উঠতে হবে, জানালেন Habas

৪০ মিনিটে আবার গোল। রাজু গাওকোয়াডের খারাপ রক্ষণের সুযোগ নিয়ে কর্নার থেকে নেওয়া শটে গোল করে গেলেন হাভি হার্নান্ডেজের শটে গোল করতে ভুল করেননি সেই রোডাস। তাঁর জোড়া গোলে ২-১ এগিয়ে গেল ওডিশা। 

 

৪৫ মিনিটে আবার গোল। আগের দুটো গোল করতে সাহায্য করেছিলেন। তৃতীয় গোলটি নিজেই করলেন হাভি হানার্ন্ডেজ। দুরন্ত গোল করলেন হাভি। লাল-হলুদ গোলকিপার শুভম সেনের কিছুই করার ছিল না। ওডিশাকে ৩-১ এগিয়ে দিলেন তিনি।

প্রথমার্ধে ৩-১ গোলে পিছিয়ে রইলেও লাল-হলুদের মধ্যে মরিয়া ভাব দেখা যায়নি। ৭১ মিনিটে সেট পিস থেকে আরিদাইয়ের অসাধারণ একটি গোল। ৪-১ এগিয়ে গেল ওডিশা। 

Haokip

ম্যাচে জয় অনিশ্চিত। এমন অবস্থায় ৮০ মিনিটে গোল করে ব্যবধান কমান সেনবোই হাওকিপ। দ্বিতীয়ার্ধে মাঠে নেমে খেলার একেবারে শেষ দিকে জোড়া গোল করেন নাইজেরিয়ার স্ট্রাইকার চিমা চুকু। একক দক্ষতায় দলের হয়ে তৃতীয় গোল করার কিছুক্ষণ পর পেনাল্টি থেকে চতুর্থ গোল করেন। 

তবে এতে লাভ হয়নি। কারণ ৮২ মিনিটে ইশিকা রালতে গোল করার পর ৯০ মিনিটে ফের একবার লাল-হলুদের জালে বল জড়িয়ে শেষ পেরেক পুঁতে দেন আরিদাইয়ের। 

গত মরসুমের জঘন্য পরিসংখ্যানকে পিছনে ফেলে এসসি ইস্টবেঙ্গল কি চলতি আইএসএল-এ আরও লজ্জার পরিসংখ্যান অগণিত সমর্থকদের 'উপহার' দেবে? গত মরসুমে রবি ফাউলারের কোচিংয়ে জোড়া ডার্বি হেরে নয় নম্বরে শেষ করেছিল লাল-হলুদ। ২০ ম্যাচে ২২ গোল করে ৩৩ গোল হজম করেছিল ইস্টবেঙ্গল। তবে এ বার প্রথম তিন ম্যাচেই ১০ গোল হজম করল হোসে মানুয়েল দিয়াজের দল। খেলা তো আরও বাকি। আর কত খেল যে এই লাল-হলুদ দেখাবে কে জানে! 

গত বছর ওডিশার বিরুদ্ধে দু'টি ম্যাচ খেলে একটিতে জিতেছিল এসসি ইস্টবেঙ্গল। একটি হেরেছিল। দুই দল মিলিয়ে মোট ১৫ গোল হয়েছিল। তবে এ বার হাফ ডজন গোল খেয়ে আরও একরাশ লজ্জা দিল লাল-হলুদ। 

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)