পণের টাকার দাবিতে রাজ্যের দুই প্রান্তে খুন দুই গৃহবধূ

পণের টাকার দাবিতে রাজ্যের দুই প্রান্তে খুন দুই গৃহবধূ। দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে। তাদের মারধর করে পুলিসের হাতে তুলে দেয় উত্তেজিত জনতা। গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠেছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার গোসাবাতেও। 

Updated By: Jun 26, 2017, 08:25 PM IST
পণের টাকার দাবিতে রাজ্যের দুই প্রান্তে খুন দুই গৃহবধূ

ওয়েব ডেস্ক: পণের টাকার দাবিতে রাজ্যের দুই প্রান্তে খুন দুই গৃহবধূ। দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরে স্ত্রীকে খুনের অভিযোগ স্বামী ও শাশুড়ির বিরুদ্ধে। তাদের মারধর করে পুলিসের হাতে তুলে দেয় উত্তেজিত জনতা। গৃহবধূকে খুনের অভিযোগ উঠেছে দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার গোসাবাতেও। 

দক্ষিণ ২৪ পরগনা। দক্ষিণ দিনাজপুর। রাজ্যের দুই প্রান্ত। কিন্তু অভিযোগ একই। দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবন কোস্টাল থানার সাতজেলিয়া গ্রাম থেকে উদ্ধার এক মহিলার ঝুলন্ত দেহ। অভিযোগ, তাঁকে খুন করা হয়েছে। রবিবার রাতেই সুন্দরবন কোস্টাল থানায় অভিযোগ দায়ের করে মৃতার পরিবার। স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিস। অভিযোগ, পণের টাকার জন্য দীর্ঘদিন ধরেই চাপ দেওয়া হত মহিলাকে। নিয়মিত শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনও চলত বলে অভিযোগ মৃতার পরিবারের।

একই ঘটনা দক্ষিণ দিনাজপুরের গঙ্গারামপুরের ভাতরায়। ঝুলন্ত অবস্থায় গৃহবধূর দেহ উদ্ধারে উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। মহিলার স্বামী ও শাশুড়িকে ব্যাপক মারধর করে স্থানীয়রা। আহত অবস্থায় তাদের  হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে তাদের নিয়ে যায় পুলিস। পড়শিদের অভিযোগ, পণের টাকার জন্য মহিলার ওপর অত্যাচার চালাত শ্বশুরবাড়ির লোকজন। তারাই খুন করেছে মহিলাকে।

বাঁকুড়ার সারেঙ্গায় হাতির তাণ্ডবে আতঙ্ক ছড়াল গ্রামবাসীদের মধ্যে