'লিখিতভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে জানানো হবে' NJP স্থলবন্দরের ঘটনায় আতঙ্কে শিল্পপতিরা

এ দিন তিনি বলেন, 'আমরা উদ্বোধনের জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাব বলে ঠিক করেছিলাম। এ বিষয়ে স্থানীয় মন্ত্রী গৌতম দেবের সঙ্গেও বৈঠক করেছি। তিনি রাজিও হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রীকে দিয়ে উদ্বোধন করানোর জন্য, কারণ এটা মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প।' 

Updated By: Feb 5, 2021, 04:42 PM IST
'লিখিতভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে জানানো হবে' NJP স্থলবন্দরের ঘটনায় আতঙ্কে শিল্পপতিরা

নিজস্ব প্রতিবেদন: 'এনজেপির তৃণমূলের শ্রমিক নেতা প্রসেনজিৎ রায়ের তাণ্ডবেই তারা ভয়ে আছেন। যদিও প্রশাসনের ওপর তাঁদের যথেষ্ট ভরসা রয়েছে।' শিলিগুড়ি জার্নালিস্ট ক্লাবে এক সাংবাদিক সম্মেলন করে একথাই জানালেন স্থলবন্দর প্রকল্পের কর্ণধার সঞ্জয় মেওয়ার। অভিযোগ বৃহস্পতিবার স্থলবন্দরে হামলা চালায় প্রসেনজিত রায়ের লোকজন। তাঁরা গোটা স্থলবন্দর ভাঙচুর করেছে। এ দিন সিসিটিভি ফুটেজের সেই ছবিও দেখানো হয়।

শুক্রবার দিনভর পুলিস তৎপরতায় ঘটনার সঙ্গে যুক্ত সকলকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই তালিকায় প্রসেনজিৎ রায়ও রয়েছেন। তাঁর বাড়িতেও তল্লাসি চালায় পুলিস। যদিও পুলিস সূত্রে খবর বিকেল অবধি তাঁকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুন:  শিলিগুড়িতে INTTUC-র বিক্ষোভের জের, অঘোষিত বনধের জেরে নাকাল সাধারণ মানুষ

অন্যদিকে এই ঘটনা প্রসঙ্গে দার্জিলিং জেলা আইএনটিটিইউসি জেলা সভাপতি অরূপ রতন ঘোষ বলেন, 'মুখ্যমন্ত্রী শহরে উপস্থিত থাকাকালীন এনজেপির আইএনটিটিইউসি নেতা প্রসেনজিৎ রায়ের নেতৃত্বে যেভাবে স্থলবন্দরে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটল তা দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ। এই ঘটনা অত্যন্ত নিন্দনীয়। শিল্প বাচলে আমরা বাঁচব, এটা হওয়া উচিত ছিল না। রাজ্যের পর্যটন মন্ত্রী গৌতম দেব শিলিগুড়িতে ফিরলে বৈঠক করে বিষয়টি তদন্ত করে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেই জানাচ্ছেন তাঁরা। 

ঠিক একইভাবে প্রসেনজিত রায়ের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেন শিল্পপতি সঞ্জয় মেওয়ারও। এ দিন তিনি বলেন, 'আমরা উদ্বোধনের জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে আমন্ত্রণ জানাব বলে ঠিক করেছিলাম। এ বিষয়ে স্থানীয় মন্ত্রী গৌতম দেবের সঙ্গেও বৈঠক করেছি। তিনি রাজিও হয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রীকে দিয়ে উদ্বোধন করানোর জন্য, কারণ এটা মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের প্রকল্প।' 

তবে তাঁর আক্ষেপ, 'যে ঘটনা ঘটল তাতে আমরা আতঙ্কে আছি। গোটা বিষয়টি আমরা লিখিতভাবে মুখ্যমন্ত্রীকে জানাব। আমরা প্রসেনজিত রায়-সহ আরও বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি। আশা করি পুলিস তাদের সকলকে গ্রেফতার করবে।'