পঞ্চায়েত মনোনয়নে জারি সংঘর্ষ, নির্বাচন কমিশনারকে তলব রাজ্যপালের

এখানেই থেমে থাকেননি দিলীপ ঘোষ। তিনি আরও বলেন, ‘প্রতিবার ৭০-৮০ জন শ্মশানে যায়। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না।‘

Updated By: Apr 3, 2018, 06:02 PM IST
পঞ্চায়েত মনোনয়নে জারি সংঘর্ষ, নির্বাচন কমিশনারকে তলব রাজ্যপালের

নিজস্ব প্রতিবেদন: মনোনয়ন পেশ ঘিরে রাজ্যের কয়েকটি জায়গায় বিক্ষিপ্ত সংঘর্ষ। যার জেরে নির্বাচন কমিশনার অমরেন্দ্রকুমার সিংকে তলব করলেন রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী। এই ঘটনায় রাজ্যপালের রাজনৈতিক নিরপেক্ষতা নিয়েই প্রশ্ন তুললেন তৃণমূল নেতা পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, 'রাজ্যপাল চান কেন্দ্রীয় বাহিনী আসুন, বিজেপির অভিযোগই শুনছেন উনি। এই পরিস্থিতিতে রাজ্যের মানুষের মনে রাজ্যপালের নিরপেক্ষতা নিয়েই প্রশ্ন জাগছে।'

মনোনয়ন জমা দেওয়ার ঘিরে অশান্ত রাজ্যের বিভিন্ন এলাকা। দ্বিতীয় দিনেও বীরভূম, মুর্শিদাবাদ, হুগলির আরামবাগ থেকে সংঘর্ষের খবর আসে। এই পরিস্থিতি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ যা মন্তব্য করলেন, তা রীতিমতো আগুনে ঘি দেওয়ার মতো। দিলীপবাবু বলেন, ‘দলবল নিয়ে মনোনয়ন জমা দেব। পঞ্চায়েত ভোটে পাল্টা মারব।‘

আরও পড়ুন: মনোনয়ন জমা ঘিরে তুলকালাম, বিজেপি নেতাকে ‘ছুরি’

এখানেই থেমে থাকেননি দিলীপ ঘোষ। তিনি আরও বলেন, ‘প্রতিবার ৭০-৮০ জন শ্মশানে যায়। এবারও তার ব্যতিক্রম হবে না।‘

রাজ্যে প্রধান বিরোধী হিসাবে মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছে বিজেপি। মনোনয়ন জমা দেওয়ার প্রথম দিন থেকেই যুযুধান প্রতিপক্ষ তৃণমূল-বিজেপির সংঘর্ষের খবর আসছে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে। সেক্ষেত্রে দিলীপ ঘোষের এই মন্তব্য উত্তেজনা আরও বাড়াবে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। 

আরও পড়ুন: মায়ের সামনে থেকেই ছেলেকে তুলে নিয়ে গিয়ে খুন!

অন্যদিকে, এদিন বিজেপিকে পালটা তোপ দেগেছেন অনুব্রত মণ্ডল। তিনি বলেন, ‘বীরভূমের সুস্থ পরিবেশ ওরা নষ্ট করেছে। ‘ তিনি আরও বলেন, ‘বীরভূমে বিজেপির পায়ের তলার মাটি নেই। এখানে হিন্দু মুসলিমের রাজনীতি হয় না।‘ বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগ প্রসঙ্গে অনুব্রতর পাল্টা কটাক্ষ, ‘একজন হোঁচট খেয়ে পায়ে বেঁধে পড়ে গেলেন, আর উঠে বলছেন ছুরি মারছেন।‘