close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ উত্তর ২৪ পরগনাতে

প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ উত্তর ২৪ পরগনাতেও। ফ্রেশারদের প্যারা টিচার দেখানোর অভিযোগ। বিক্ষোভ চলল বারাসতের মহাত্মা গান্ধী মেমোরিয়াল হাইস্কুলে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিক্ষোভ হয়। জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন চাকরিপ্রার্থীরা। রাত পর্যন্ত বিক্ষোভ চলে। ঘটনাস্থলে যান অতিরিক্ত জেলাশাসক। তিনি অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিলে অবরোধ উঠে যায়।

Updated: Feb 17, 2017, 09:34 AM IST
প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ উত্তর ২৪ পরগনাতে

ওয়েব ডেস্ক: প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগকে কেন্দ্র করে বিক্ষোভ উত্তর ২৪ পরগনাতেও। ফ্রেশারদের প্যারা টিচার দেখানোর অভিযোগ। বিক্ষোভ চলল বারাসতের মহাত্মা গান্ধী মেমোরিয়াল হাইস্কুলে। বৃহস্পতিবার দুপুর থেকে বিক্ষোভ হয়। জাতীয় সড়ক অবরোধ করেন চাকরিপ্রার্থীরা। রাত পর্যন্ত বিক্ষোভ চলে। ঘটনাস্থলে যান অতিরিক্ত জেলাশাসক। তিনি অভিযোগ খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিলে অবরোধ উঠে যায়।

আরও পড়ুন রাতের জ্ঞানেশ্বরী এক্সপ্রেসে রায়পুর নিয়ে যাওয়া হল উদয়ন দাসকে

অন্যদিকে, পিক ফেলার অপরাধে এক ব্যক্তিকে বেঁধে রেখে বেধড়ক মারধর। অভিযুক্ত তৃণমূলের ওয়ার্ড কমিটির সদস্য। এ ঘটনার পর ৩ দিন কেটে গেলেও এখনও অধরা মূল অভিযুক্ত। ঘটনাটি ঘটেছে রাজপুর-সোনারপুরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডে।

আরও পড়ুন পিক ফেলার অপরাধে এক ব্যক্তিকে বেঁধে রেখে বেধড়ক মারধর

অভিযোগ, গত মঙ্গলবার ছেলেকে স্কুলে নিয়ে যাওয়ার সময় পিক ফেলেন শান্তনু কর্মকার। এরপরই তাঁকে আটক করেন এলাকার তৃণমূল কাউন্সিলর দিপালী নস্কর ঘনিষ্ঠ বসন্ত মণ্ডল। বিদ্যুতের খুঁটিতে বেঁধে ফেলে শান্তনু কর্মকারকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। শান্তনু কর্মকারের মাথা ফাটে, পীঠ ও মুখে ক্ষত তৈরি হয়। সোনারপুর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। অভিযোগ, এরপর থেকে নিষ্ক্রিয় পুলিস। বৃহস্পতিবার তদন্তে গেলেও কেন কাউন্সিলর ঘনিষ্ঠ বসন্ত মণ্ডলকে গ্রেফতার করা হল না, তা নিয়ে ক্ষোভ দানা বাঁধছে।