কৌন বনেগা ক্রোড়পতি: ৪০ হাজার টাকার প্রশ্ন, উত্তর দিতে সব লাইফ লাইন শেষ প্রতিযোগীর

খেলা সংক্রান্ত এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে সমস্ত লাইফলাইন শেষ করে ফেলেন কোশলেন্দ্র।

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Oct 28, 2020, 08:56 PM IST
কৌন বনেগা ক্রোড়পতি: ৪০ হাজার টাকার প্রশ্ন, উত্তর দিতে সব লাইফ লাইন শেষ প্রতিযোগীর

নিজস্ব প্রতিবেদন : শুরুটা ঠিকই হয়েছিল। তবে 'কৌন বনেগা ক্রোড়পতি'র ৪০ হাজার টাকার জন্য সপ্তম প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে হিমসিম খেয়ে গেলেন মধ্যপ্রদেশের কোশলেন্দ্র সিং তোমার। অমিতাভ বচ্চনের করা খেলা সংক্রান্ত এই প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে সমস্ত লাইফলাইন শেষ করে ফেলেন কোশলেন্দ্র।

কী ছিল সেই প্রশ্ন?

কোশলেন্দ্র সিং তোমারকে প্রশ্ন করা হয় সামার অলিম্পিক গেমসে একমাত্র কোন ভারতীয় মহিলা রুপো জেতেন? অপশন ছিল- পিভি সিন্ধু, মেরি কম, কর্ণম মালেশ্বরী, সাক্ষী মালিক। সঠিক উত্তরটা হল পিভি সিন্ধু। তবে এই প্রশ্নের উত্তর দিতে হিমসিম খেয়ে যান কোশলেন্দ্র। প্রথম লাইফ লাইনে তিনি ভিডিয়ো কলে এক বন্ধুকে ফোন করেন। বন্ধুটি সাক্ষী মালিককে উত্তর হিসাবে বেছে নেন। যদিও তাঁর বন্ধুটিও উত্তর নিয়ে নিশ্চিত ছিলেন না। এরপর ৫০-৫০ লাইফ লাইনের সাহায্য নেন ওই প্রতিযোগী। এই অপশনে মেরি কম আর সাক্ষী মালিকের নাম উত্তরের অপশন থেকে তুলে নেওয়া হয়। পড়ে থাকে পিভি সিন্ধু ও কর্ণম মালেশ্বরী-র নাম। আর এরপর শেষ লাইফ লাইন 'Ask The Expert'কে কাজে লাগান কোশলেন্দ্র সিং তোমার। জানতে পারেন, সঠিক উত্তর পিভি সিন্ধু।

আরও পড়ুন-'বলিউডের মাইকেল জ্যাকসন', ৯০ এর বৃদ্ধ সেজে জমিয়ে নাচলেন মিঠুন চক্রবর্তী

আরও পড়ুন-মালদ্বীপের সমুদ্রে জলকেলিতে মাতলেন অঙ্গদ বেদী-নেহা ধুপিয়া

এখানেই শেষ নয়, পরের প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়েও হোঁচট খান মধ্যপ্রদেশের কোশলেন্দ্র সিং তোমার। প্রশ্নটি ছিল 'দ্যা ইন্ডিয়ান ওয়ার অফ ইন্ডিপেন্ডেস' (১৮৫৭) বইটি কার লেখা? উত্তরের অপশন ছিল উইনস্টন চার্চিল, জওহরলাল নেহেরু, বিনায়ক দামোদর সাভারকর এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। প্রসঙ্গত সঠিক উত্তর হল বিনায়ক দামোদর সাভারকর।

খেলা চলাকালীন মধ্যপ্রদেশের কোশলেন্দ্র সিং তোমার মজা করে বলেন, পুরস্কারের টাকায় স্ত্রীর প্লাস্টিক সার্জারি করাবেন। এমন কথা শুনে অবাক হয়ে অমিতাভ বচ্চন তার কারণ জানতে চান। তোমার বলেন, গত ১৫ বছর ধরে তিনি স্ত্রীর একই মুখ দেখে দেখে ক্লান্ত। এমন উত্তর অমিতাভ হেসে ফেললেও ওই প্রতিযোগীর স্ত্রীকে এই কথায় কান না দিতে বলেন। তবে বিগ-বি কোশলেন্দ্রকে সতর্ক করেন, এধরনের কথা বলা উচিত নয়, এমনকি মজা করেও নয়।