যারা দাঙ্গা করে, তারা পালিয়ে যাক: মমতা; ইউপি-বিহারের লোক বহিরাগত?: দিলীপ

নজরে একুশ। রাজ্যের মাটিতে শাসক শিবিরকে লাগাতার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে চলেছে বিজেপি। 

Updated By: Nov 21, 2020, 12:00 AM IST
যারা দাঙ্গা করে, তারা পালিয়ে যাক: মমতা; ইউপি-বিহারের লোক বহিরাগত?: দিলীপ

নিজস্ব প্রতিবেদন: উপলক্ষ ছট। কিন্তু অনুষ্ঠানের মঞ্চ হয়ে উঠল রাজনৈতিক তরজার কেন্দ্র। যারা হিংসা ছড়াচ্ছে দেশ থেকে তারা বিদায় হোক। নাম না করে বিজেপিকে তোপ মুখ্যমন্ত্রীর। ভিনরাজ্যের মানুষকে বহিরাগত বললে, হিসেবনিকেশ হবে আগামী বছরই। চ্যালেঞ্জ দিলীপ ঘোষের। 

নজরে একুশ। রাজ্যের মাটিতে শাসক শিবিরকে লাগাতার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে চলেছে বিজেপি। ভোট ময়দানে সাম্প্রদায়িকতা ইস্যুতে পদ্মশিবিরকে বিঁধতে তত্পর তৃণমূল। এ দিন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন,''আমরা প্রার্থনা করি, সবাই ভালো থাকুন। দেশ ছেড়ে পালাক করোনা। দেশে যারা দাঙ্গা করে, তারা পালিয়ে যাক। গরিবি চলে যাক।'' 

বিজেপি অবশ্য পাল্টা আক্রমণে বেছে নিচ্ছে অন্যপথ। বহিরাগত ইস্যুতেই কোমর বাঁধছেন দিলীপ ঘোষরা। বিজেপির রাজ্য সভাপতি বলেন,''ইউপি, বিহার থেকে আসলে বহিরাগত হয়ে গেলেন। বাহ। কী রাজনীতি দিদির! ভোটেই দেখিয়ে দেব, কে বহিরাগত, কে রাজ্যের।''    

ছটপুজোর অনুষ্ঠান মঞ্চে দাঁড়িয়েই মুখ্যমন্ত্রী অবশ্য বলছেন সম্প্রীতির সবথেকে বড় নিদর্শন বাংলাই। বিজেপি রাজ্য সভাপতির পাল্টা খোঁচা, দেখনদারিটা কম হলেই ভাল। দইঘাট আর তক্তাঘাটে ছটের অনুষ্ঠানে অংশ নেন মুখ্যমন্ত্রী। দিলীপ ঘোষ ছিলেন বাবুঘাটের অনুষ্ঠানে। তার আগে যান খিদিরপুরের ভূকৈলাশ রোডের অনুষ্ঠানে। 

আরও পড়ুন- দেড় মাস আগে চাকরির ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী, শুরু হল নিয়োগ