হাইকোর্টে ধাক্কা অভিভাবকদের, ১৫ অগাস্টের মধ্যে দিতে হবে স্কুলের বকেয়া ফি-র ৮০ শতাংশ

 বিচারপতি নির্দেশ দেন, ভবিষ্যতে কোনও তথ্য যেন স্যোশাল মিডিয়ায় না যায়। 

Reported By: শ্রাবন্তী সাহা | Edited By: সুদেষ্ণা পাল | Updated By: Aug 10, 2020, 04:06 PM IST
হাইকোর্টে ধাক্কা অভিভাবকদের, ১৫ অগাস্টের মধ্যে দিতে হবে স্কুলের বকেয়া ফি-র ৮০ শতাংশ
ফাইল ফোটো

নিজস্ব প্রতিবেদন : ফের ধাক্কা অভিভাবকদের। বকেয়া স্কুল ফি আগামী ১৫ অগাস্টের মধ্যেই দিতে হবে। এর আগেই নির্দেশে হাইকোর্ট জানিয়েছিল বকেয়া ফি-র অন্তত ৮০ শতাংশ দিতেই হবে। এদিন অভিভাবকদের পক্ষ থেকে আর্জি জানানো হয় মামলার নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত যেন বকেয়া ফি না নেওয়া হয়। সেই আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন বিচারপতি সঞ্জীব ব্যানার্জির ডিভিশন বেঞ্চ। 

লকডাউনে স্কুলে ফি মকুবের আর্জি নিয়ে মামলা করেন বিনীত রুইয়া নামে জনৈক অভিভাবক।  সেই মামলায় ১১২টি স্কুলের নাম ছিল। যদিও মামলাকারী আজ জানান যে তাঁরা ৪৫টি স্কুলে নোটিস দিতে পেরেছেন। মামলার শুনানিতে এজি জানান, রাজ্য সরকার ইতিমধ্যেই বাড়তি ফি মকুবের অনুরোধ জানিয়ে একটি সার্কুলার জারি করেছে। সেই বিষয়টি  স্কুলগুলি পালন করবে বলেই তার আশা। কেউ ফি দিতে না পারলে তাকে যেন অনলাইন ক্লাস থেকে বঞ্চিত না করার আর্জিও হলফনামায় জানান তিনি। 

ওদিকে মামলাকারী এই মামলার একাধিক তথ্য স্যোশাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে। সেই অভিযোগে প্রেক্ষিতে বিচারপতি নির্দেশ দেন, ভবিষ্যতে কোনও তথ্য যেন স্যোশাল মিডিয়ায় না যায়। পাশপাশি, আগামী সপ্তাহের মধ্যে বকেয়া ফি-র ৮০ শতাংশ দিয়ে দেওয়ার নির্দেশ বজায় রাখে ডিভিশন বেঞ্চ। স্কুলের পক্ষে আইনজীবী অয়ন চক্রবর্তী  জানান, রাজ্য সরকার বেশ কিছু ফি না নেওয়ার অনুরোধ করেছিল। কিন্তু কোনও নির্দেশ দেয়নি। তাই সেই নির্দেশ সবাইকে মানতেই হবে, এমন কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। তাঁর কথায়, তার স্কুল ইতিমধ্যেই ৩৫ শতাংশ টাকা মকুব করেছে।

আগামী সোমবার মামলার পরবর্তী শুনানি। অন্যদিকে আজই স্কুলগুলি তাদের কর্মীদের বেতন দেওয়া, পরিকাঠামোর উন্নতি ইত্যাদি বিষয়ে আদালতে হলফনামা জমা দিয়েছে।

আরও পড়ুন, অভাবের তাড়নায় সদ্যোজাত সন্তানকে খুন, ৬ মাস পর স্বীকার করল মা!