জিয়নকাঠি আড্ডা

অফিস, বাড়ি, সংসার, এতেই আবদ্ধ জীবন? বন্ধুবান্ধব, আড্ডা, এসব কি হারিয়ে যেতে বসেছে জীবন থেকে?  ফিরিয়ে আনুন পুরনো দিনগুলো। মশগুল থাকুন নির্মল আড্ডায়। গবেষণা বলছে, বন্ধুদের সঙ্গে চুটিয়ে আড্ডাই আপনার জিয়নকাঠি।

Updated By: Jun 22, 2017, 11:41 PM IST
জিয়নকাঠি আড্ডা

ওয়েব ডেস্ক: অফিস, বাড়ি, সংসার, এতেই আবদ্ধ জীবন? বন্ধুবান্ধব, আড্ডা, এসব কি হারিয়ে যেতে বসেছে জীবন থেকে?  ফিরিয়ে আনুন পুরনো দিনগুলো। মশগুল থাকুন নির্মল আড্ডায়। গবেষণা বলছে, বন্ধুদের সঙ্গে চুটিয়ে আড্ডাই আপনার জিয়নকাঠি।

লন্ডন স্কুল অফ ইকনমিকসের একটা রিপোর্ট বলছে, রোগ সারাতে আড্ডার জুড়ি নেই।  পারিবারিক আড্ডার চেয়ে বন্ধুমহলে আড্ডা অনেক ভাল। কারণ বন্ধুরাই পারে সবচেয়ে বেশি আনন্দ দিতে। মন ভাল থাকলে ভাল থাকবে শরীর। অতএব আপনার আড্ডা মারা নিয়ে ফ্যামিলি যতই গাঁইগুঁই করুক না কেন, ঠেকবাজি চালিয়ে যেতেই পারেন। লন্ডন স্কুল অফ ইকনমিকসের সমীক্ষা রিপোর্টে এমনই দাবি। কীসের ভিত্তিতে এত বড় কথা বলছে তারা?

৩ বছর ধরে স্মার্টফোনের ডাটা সংগ্রহ করে আড্ডার মাহাত্ম্য উপলব্ধি করেছে লন্ডনের নামী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। হ্যাপিনেস মাপতে তৈরি করা হয়েছে MAPINESS APP। নির্দিষ্ট সময় অন্তর এই অ্যাপ অ্যালার্ট দিতে থাকে। জানতে চায় সময়ে সময়ে কে  কতটা সুখী? কতটা আরামে? মুড যখন ভাল, তখন তাঁরা কী করছেন এবং কাদের সঙ্গে রয়েছেন?

৫০ হাজার মানুষ MAPINESS APP ডাউনলোড করেন। ৩০ লক্ষ উত্তর উঠে আসে তাঁদের কাছ থেকে। MAPINESS APP এর সমীক্ষায় যা উঠে এসেছে, তা হল এই রকম,

মন ভাল করতে কে কত ভাল?

বন্ধুরা খুশি রাখতে পারে ৮.২ শতাংশ - সবচেয়ে বেশি। সেখানে জীবনসঙ্গী (স্বামী অথবা স্ত্রী) খুশি রাখতে পারে ৫.৯ শতাংশ। অন্যান্য পরিবার ২.৯ শতাংশ। সন্তান-সন্ততি তারও পেছনে - ১.৪ শতাংশ।  অর্থাত্‍ মুড ভাল করতে পরিবারের চেয়ে বন্ধুরাই বেশি চোস্ত।

স্ট্রেসফুল আর টেনশনে ঠাসা লাইফে মানুষ কার সান্নিধ্যে সবচেয়ে বেশি খুশি? এটাই দেখতে চেয়েছিলেন গবেষকরা। আর সেখানে ফ্যামিলিকে পিছনে ফেলে জিতে যাচ্ছে ফ্রেন্ড। (আরও পড়ুন- ভুল খাবার পরিবেশন করেই সঠিক বার্তা দ্য রেস্তোরাঁ অফ অর্ডার মিসটেকসের)