close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

দুনিয়ার উদ্বাস্তুদের রাজধানী হতে পারে না ভারত, সুপ্রিম কোর্টে সাফ জানাল কেন্দ্র

সলিসিটর জেনারেল বলেন, এলাকার এনআরসি আধিকারিকদের সঙ্গে যোগসাজসে বহু অনুপ্রবেশকারী নাগরিকপঞ্জীতে ঢুকে পড়েছে

Updated: Jul 19, 2019, 11:56 AM IST
দুনিয়ার উদ্বাস্তুদের রাজধানী হতে পারে না ভারত, সুপ্রিম কোর্টে সাফ জানাল কেন্দ্র

নিজস্ব প্রতিবেদন: দেশের প্রতিটি কোণ থেকে বিদেশি অনুপ্রবেশকারীদের খুঁজে বের করে তাদের ফেরত পাঠানো হবে। বুধবার রাজ্যসভায় সাফ জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। এবার শীর্ষ আদালতে প্রায় সেরকম কথাই বলল কেন্দ্র।

আরও পড়ুন-ফের অশান্ত কাঁকিনাড়া, বোমাবাজিতে মৃত১, গ্রেফতার ৫

অসমে নাগরিকপঞ্জী নিয়ে হওয়া এক মামলায় কেন্দ্র সাফ জানিয়ে দিল, দুনিয়ার উদ্বাস্তুদের রাজধানী হতে পারে না ভারত। এদিন সুপ্রিম কোর্টে কেন্দ্র জানায়, নাগরিকপঞ্জী তৈরির জন্য আরও কিছু সময় দেওয়া হোক সরকারকে। পাশাপাশি এদিন কেন্দ্রীয় সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহতা বলেন, ‘ভারত দুনিয়ার উদ্বাস্তুদের রাজধানী হতে পারে না।’

সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশ মতো অসমে নাগরিকপঞ্জী তৈরি করছে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার। সেই তালিকা শেষ করার সময়সীমা শেষ হচ্ছে ৩১ জুলাই। ওই সময়সীমা বাড়ানোর জন্য সুপ্রিম কোর্টে আবেদন করে কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার।

এদিন সলিসিটর জেনারেল বলেন, এলাকার এনআরসি আধিকারিকদের সঙ্গে যোগসাজসে বহু অনুপ্রবেশকারী নাগরিকপঞ্জীতে ঢুকে পড়েছে। ওইসব অবৈধ বসবাসকারীদের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নিতে হবে। দুনিয়ার উদ্বাস্তুদের রাজধানী হতে পারে না ভারত। তাই নাগরিকপঞ্জী তৈরির জন্য আরও সময় দেওয়া হোক।

আরও পড়ুন-কর্ণাটকে আজ আস্থাভোট, কুমারস্বামীকে চাপে রাখতে বিধানসভায় রাতভর ধরনায় বিজেপি বিধায়করা

উল্লেখ্য, বিতর্কিত নাগরিকপঞ্জীর প্রথম খসড়া প্রকাশিত হয় ২০১৮ সালের ১ জানুয়ারি। রাজ্যের ৩.২৯ কোটি মানুষের মধ্যে ১.৯ কোটি মানুষের নাম ছিল সেই তালিকায়। কিন্তু বাদপড়াদের সংখ্যা নিয়ে তুমুল রাজনৈতিক তরজা শুরু হয়ে যায়। অভিযোগ ওঠে, পরিকল্পনা করে অসমের বৈধ নাগরিকদের নাম বাদ দিচ্ছে সরকার।