হেরেও সেমিতে নিশ্চিত কিউয়িরা, কী রকম 'দৈবযোগ' হলে পাকিস্তানের দরজা খুলবে?

গ্রুপপর্বের শেষ দুটি ম্যাচ জিততেই হতো। এমন পরিস্থিতি থেকে দারুণভাবে প্রত্যাবর্তন করল ইংল্যান্ড।

Updated By: Jul 3, 2019, 11:44 PM IST
হেরেও সেমিতে নিশ্চিত কিউয়িরা, কী রকম 'দৈবযোগ' হলে পাকিস্তানের দরজা খুলবে?

নিজস্ব প্রতিবেদন: মরণ-বাঁচন ম্যাচে নিউজিল্যান্ডকে ১১৯ রানে হারিয়ে সেমিফাইনালের দরজা খুলে ফেলল ইংল্যান্ড। হারলেও কিউয়িদের সেমির রাস্তাও একেবারে মসৃণ। তবুও নিয়মরক্ষার জন্য বাংলাদেশ-পাকিস্তান ম্যাচ পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে উইলিয়ামসনদের। 

গ্রুপপর্বের শেষ দুটি ম্যাচ জিততেই হতো। এমন পরিস্থিতি থেকে দারুণভাবে প্রত্যাবর্তন করল ইংল্যান্ড। ভারতের পর নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে আগে ব্যাট করে ৩০০-র বেশি রান তুললেন মর্গ্যানরা। বুধবার ইংল্যান্ড ৫০ ওভারে তোলে ৩০৫ রান। জবাবে ১৮৬ রানে মুড়িয়ে গেল নিউজিল্যান্ড। ১১৯ রানে পরাজয়। বর্তমানে পয়েন্ট তালিকায় ১২ পয়েন্ট নিয়ে তৃতীয় স্থানে ইংল্যান্ড। ১১ পয়েন্ট পেয়ে চতুর্থ স্থানে কিউয়িরা। ৮ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে পঞ্চম স্থানে পাকিস্তান। বাংলাদেশের সঙ্গে শেষ ম্যাচ জিতলে তারা পৌঁছে যাবে ১১ পয়েন্টে। কিন্তু নেট রান রেটে অনেকটাই পিছিয়ে পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের রান রেট ০.১৭৫। সেখানে পাকিস্তানের -০.৭৯২।

নেট রান রেটের ফারাকই শেষপর্যন্ত সেমির পথে বাধা হয়ে দাঁড়াল পাকিস্তানের। তবে পরিসংখ্যানের বিচারে এখনও একটা সম্ভাবনা রয়েছে। কী রকম?       

পাকিস্তানের সেমিতে যাওয়ার পথ-

১. প্রথমে ব্যাট করে তুলতে হবে ৩৫০ রান। বাংলাদেশকে হারাতে হবে ৩১১ রানে। অর্থাত্ সাকিবদের বেঁধে রাখতে হবে ৩৯ রানে।    

২. ৪০০ রান করে বাংলাদেশকে হারাতে হবে ৩১৬ রানে।              

৩. ৪৫০ রান করলে বাংলাদেশকে হারাতে হবে ৩২১ রানে।

৪. বাংলাদেশ আগে ব্যাট করলে কোনও সুযোগই নেই।       

ক্রিকেটে অসম্ভব বলে কিছু নেই। কিন্তু তা বলে এতটাও নয়। বিশেষ করে বাংলাদেশের মতো দলের বিরুদ্ধে এমনটা অসম্ভব। ফলে খাতায়-কলমে না হলেও পাকিস্তানের বিশ্বকাপের অভিযান শেষ হয়ে গেল।      

আরও পড়ুন- মিডল অর্ডারের ব্যামো সারল না, স্লগওভারেও বিরক্তিকর টেস্ট ব্যাটিং, মন্থর ধোনি