কাটোয়ার শ্রীখণ্ড বালক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে চাঞ্চল্য

Updated By: Aug 5, 2017, 04:53 PM IST
কাটোয়ার শ্রীখণ্ড বালক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে চাঞ্চল্য

ওয়েব ডেস্ক: দাখিল করা সার্টিফিকেট জাল, এই অভিযোগ সদ্য নিয়োগ হওয়া প্রাথমিক শিক্ষককে হাজিরা খাতায় সই করতে নিষেধ ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকের। স্কুল পরিদর্শকের বিরুদ্ধে হেনস্থার অভিযোগ অভিযুক্ত প্রাথমিক শিক্ষকের। কাটোয়ার শ্রীখণ্ড বালক প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ নিয়ে চাঞ্চল্য।

ইনি দেবাশিস দত্ত। শ্রীখণ্ড বালক প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করছেন। সেই জুন মাস থেকে। তবে এখন তাঁকে আর স্কুলের হাজিরা খাতায় সই করতে দেওয়া হচ্ছে না। স্কুলে আসতে বারণ করা হচ্ছে।

দেবাশিস দত্তের দাবি, বর্ধমান জেলা প্রাথমিক শিক্ষা সংসদের চেয়ারম্যানের সাক্ষর করা বৈধ নিয়োগপত্র নিয়ে তিনি স্কুলে জয়েন করেছেন। কিন্তু স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক অন্য কথা বলছেন।

দেবাশিস দত্তের অভিযোগ, স্কুল পরিদর্শক কোনও কারণ ছাড়াই তাঁকে হেনস্থা করছেন। যদিও স্কুল পরিদর্শকের বলছেন, দেবাশিস দত্ত স্কুলের শিক্ষকই নয়। তবে একই সঙ্গে তিনি জানিয়েছেন ওর সার্টিফিকেট ভেরিফিকেশনের জন্য পাঠানো হয়েছে।

দেবাশিস দত্তের যে স্নাতক স্তরের সার্টিফিকেট তা মেঘালয়ের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের। অভিযোগ, সেই সার্টিফিকেট জাল। আর তার জেরেই সমস্যা। কিন্তু প্রশ্ন অন্য জায়গায়, প্রধান শিক্ষক বলছেন কোনও নিয়োগপত্র ছাড়াই মৌখিক নির্দেশে স্কুলে আসছেন দেবাশিস দত্ত। এই মৌখিক নির্দেশ কার। দেবাশিস দত্ত বলছেন বৈধ নিয়োগ পত্র রয়েছে। তবে সেই বৈধ শিক্ষক অবৈধ হল কী করে।