close

News WrapGet Handpicked Stories from our editors directly to your mailbox

স্কুলে ঢুকে ছাত্রকে মার তৃণমূল নেতার, স্থানীয়দের অবরোধে লাঠিচার্জ পুলিসের

অবরোধ তুলতে বিক্ষোভকারীদের উপর লাঠিচার্জ করে পুলিস। ছাত্রদের টেনে তুলে অবরোধ তোলা হয়।

Updated: Sep 11, 2019, 05:36 PM IST
স্কুলে ঢুকে ছাত্রকে মার তৃণমূল নেতার, স্থানীয়দের অবরোধে লাঠিচার্জ পুলিসের

নিজস্ব প্রতিবেদন : আরামবাগে পুরশুড়ায় স্কুলে ঢুকে নবম শ্রেণির ছাত্রকে মারধর করার অভিযোগ উঠল স্থানীয় তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে। এর প্রতিবাদে তৃণমূল নেতাকে ঘেরাও করে ব্যাপক বিক্ষোভ দেখালেন স্কুলের ছাত্রছাত্রী ও স্থানীয়রা।  পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নামানো হয় র‍্যাফ। বুধবার কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নিল আরামবাগ কলকাতা রাজ্য সড়ক। 

 

ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগ, এদিন স্কুল চলাকালীনই স্থানীয় তৃণমূল নেতা শেখ আলাউদ্দিন স্কুলে ঢুকে পড়েন। তারপর ঋজু মালিক নামে নবম শ্রেণির এক ছাত্রকে মারধর করেন তিনি। তার পরেই বিক্ষোভে ফেটে পড়েন ছাত্রছাত্রীরা। কী করে স্কুল চলাকালীন ওই ব্যক্তি প্রবেশ করলেন, তাই নিয়ে প্রশ্ন তোলে ছাত্রছাত্রীরা। স্কুলের প্রবেশপথের গেটে তালা ঝুলিয়ে দেয় তারা। তারপর অভিযুক্ত তৃণমূল নেতাকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে তারা। যোগ দেন ছাত্রছাত্রীদের অভিভাবক ও স্থানীয়রাও। স্কুলে শিক্ষক-শিক্ষিকাদেরও প্রবেশ করতে দিতে অস্বীকার করে তারা। এর পরে আরামবাগ-কলকাতা রাজ্য় সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভকারী ছাত্রছাত্রীরা।

আরও পড়ুন: বিজেপি সাংসদ নিশীথ প্রামাণিকের এলাকায় তৃণমূলনেতার বাড়ির সামনে বোমাবাজি!

ছাত্রছাত্রীদের অবরোধে স্তব্ধ হয়ে যায় রাজ্য় সড়ক। ব্যাপক যানজটের সৃষ্টি হয়। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে আসেন পুরশুড়া থানার ওসি, আরামবাগের এসডিপিও-সহ পুলিসের বিশাল বাহিনী। পৌঁছয় র‍্যাফও। অবরোধ তুলতে বিক্ষোভকারীদের উপর লাঠিচার্জ করে পুলিস। ছাত্রদের টেনে তুলে অবরোধ তোলা হয়। প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টার পর অবরোধ তুলে দেয় পুলিস।