ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই ও বাঙালি স্ত্রী সুতপা শিকদারকে নিয়ে মুখ খুললেন ইরফান

 এত সবের মাঝেও ইরফানকে নিজের চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হয়েছে। 

Edited By: রণিতা গোস্বামী | Updated By: Mar 4, 2020, 06:03 PM IST
ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই ও বাঙালি স্ত্রী সুতপা শিকদারকে নিয়ে মুখ খুললেন ইরফান

নিজস্ব প্রতিবেদন : একবছরেরও বেশি সময় হল ক্যান্সারের সঙ্গে লড়াই করছেন ইরফান খান। লন্ডনে দীর্ঘসময়ের চিকিৎসার পর আপাতত কিছুটা সুস্থ ইরফান (Irrfan Khan)। তবে লড়াই এখনও থামেনি। তারই মাঝে কাজ করেছেন 'আংরেজি মিডিয়াম' (Angrezi Medium) ছবিতে, যেটি আগামী ২০ মার্চ মুক্তি পেতে চলেছে। তবে এত সবের মাঝেও ইরফানকে নিজের চিকিৎসা চালিয়ে যেতে হয়েছে। ক্য়ান্সারের সঙ্গে তাঁর এই লড়াইয়ে স্ত্রী সুতপা শিকদার ও সন্তানদের পাশে থাকা নিয়ে সম্প্রতি মুখ খুলেছেন ইরফান খান।

সম্প্রতি 'মুম্বই মিরর'-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ইরফান বলেন, ''জীবনের এই চড়াই উৎরাই, চিরকাল তাঁর স্মরণে থাকবে। জীবনের সুখের সময়গুলো সবসময় আন্ডরলাইন করা থাকে, কারণ সেগুলি সহজাতভাবেই অনিশ্চিত। আমরা জীবনে কান্নার থেকেই হাসিই বেশি। জীবনে তুমি ঠিক কী চাও, তারজন্য জন্য একটু বাছাই করতেই হয়, সবটা পাওয়া যায় না। ভয়ঙ্কর উৎকণ্ঠার মধ্যে জীবন কাটিয়েছি, তবে সেগুলি সামাল দেওয়ার জন্য আমার পাশে সবসময় কেউ ছিল। জীবনে সবসময়ই এক্কা দোক্কা খেলতে খেলতেই এগোতে হবে।''

আরও পড়ুন-পায়েল সরকারের সঙ্গে সৌরভ দাসে 'কড়াপাক' প্রেম কি জমলো?

আরও পড়ুন-'ধর্মযুদ্ধ' মুক্তির আগে পুজো দিতে মহাকাল মন্দিরে রাজ-শুভশ্রী

স্ত্রী সুতপা শিকদারের সম্পর্কে বলতে গিয়ে ইরফান বলেন, ''সুতপা সম্পর্কে কোনটাই বা বলবো? ও তো ২৪/৭ ঘণ্টা আমার পাশে ছিল। আমি যদি আবার জীবন ফিরে পেয়ে থাকি তাহলে বলতে হয়, সেটা ওর যত্নের খামের মতো আমায় ঢেকে রাখার কারণেই সম্ভব হয়েছে। আমি ওর জন্যই জীবন ফিরে পেয়েছি। আমার বেঁচে থাকার কারণই ও।''

প্রসঙ্গত, এবছরই এপ্রিল মাসে নিজের ফেসবুক পেজে সুতপা শিকদার লিখেছেন, ''এই বছরটা আমাদের জীবনের সবথেকে দীর্ঘ বছর। যন্ত্রণা, কষ্ট দিয়ে সময়কে কখনওই পরিমাপ করা যায় না। আমরা আবার নতুন করে জীবনে ফিরছি, কাজে ফিরছি। আমাদের বন্ধু ও আত্মীয় এমনকি বহু অচেনা মানুষও আমাদের জন্য প্রার্থনা করেছেন আমি অভিভূত। তাঁদের জন্যই আমরা নতুন জীবনে ফিরতে পেরেছি।'' প্রসঙ্গত ২০১৮ সালে ইরফান খানের নিউরো এন্ড্রোক্রাইন টিউমারে আক্রান্ত হওয়ার খবর মেলে। যা একপ্রকার ক্যান্সারের আকার নেয় বলেই জানা যায়। 

প্রসঙ্গত, সুতপা শিকদারের সঙ্গে ইরফানের আলাপ হয়েছিল 'ন্যাশনাল স্কুল অফ ড্রামা'য় পড়ার সময়। সেখানে ইরফান ও সুতপা দুজনেই অভিনয় নিয়ে পড়াশোনা করতে গিয়েছিলেন, তবে সুতপা শিকদারের আগ্রহ অভিনয়ের থেকে চিত্রনাট্য লেখায় বেশি ছিল। পরবর্তীকালে ইরফান ও সুতপা দুজনেই নিজ নিজ কেরিয়ারে প্রতিষ্ঠিত হন। ১৯৯৫ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে তাঁরা সাতপাকে বাঁধা পড়েন। ইরফান ও সুতপার দুই সন্তানও রয়েছে।

আরও পড়ুন-শাহরুখের সঙ্গে কাজ করতে চাইছেন না? হিরানির ছবির প্রস্তাব ফেরালেন করিনা!