দুধ খাওয়া বন্ধ করে দিলে কি হবে জানেন?

Updated By: Sep 17, 2017, 05:21 PM IST
দুধ খাওয়া বন্ধ করে দিলে কি হবে জানেন?

ওয়েব ডেস্ক: বেশিরভাগ মানুষই সাধারণত গরুর দুধ খেয়ে থাকেন। দুধ আমাদের শরীরের অনেক ঘাটতি পূরণ করে। শরীরকে সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। কিন্তু এই দুধ খাওয়া এবং দুধের উপকারিতা নিয়ে আমাদের মধ্যে বেশ ভ্রান্ত ধারণাও রয়েছে। তাহলে জেনে নিন, যদি আপনি দুধ না খান, তাহলে কী কী হবে আপনার-

১) ছোটোবেলা থেকেই আমাদের বলা হয় যে, দুধ খেলে হাড় শক্ত হয়। দুধ না খেলে শরীর ঠিকমতো গড়ে ওঠে না। কিন্তু সম্প্রতি একটি জার্নালে প্রকাশিত হয়েছে যে, হাড় শক্তিশালী করার জন্য দুধ খাওয়ার প্রয়োজন নেই।
২) একমাত্র দুধে কিংবা দুগ্ধজাত খাবারেই ক্যালশিয়াম থাকে, এমনটা মোটেই নয়। যদি আপনি সঠিক পরিমানে ফল, শাক-সবজি, বিনস, বাদাম খেয়ে থাকেন, তাহলেও আপনার শরীরে ক্যালশিয়ামের ঘাটতি পূরণ হবে। যা আপনার দাঁত এবং হাড়কে শক্তিশালী রাখবে।
৩) সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, দুধ খাওয়া কম করে দিলে ক্যানসার হওয়ার সম্ভাবনাও কিছুটা কমে যায়। বাজার থেকে আমরা যে সমস্ত প্যাকেট দুধ কিনে খাই, তাতে ফ্যাটের পরিমান কম থাকলেও, সুগারের পরিমান বেশি থাকে। ফলস্বরূপ আমাদের ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে।
৪) একটা কথা প্রায়ই শোনা যায় যে, দুধ খেলে ত্বক উজ্জ্বল হয়, ত্বক ভালো থাকে। কিন্তু গবেষকরা জানাচ্ছেন যে, দুধের সঙ্গে ত্বকের কোনও সম্পর্ক নেই। চিকিত্সকদের মতে, যদি আপনার ত্বকের কোনওরকম রোগ থাকে, তাহলে দুধ খাওয়া একেবারেই উচিত্ নয়।
৫) অতিরিক্ত পরিমানে দুধ খেলে ভুঁড়ি হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। ওজন কমানোর সঙ্গে দুধ খাওয়ার কোনও সম্পর্ক নেই। যদি আপনি ওজন কমাতে চান, তাহলে সোয়াবিনের দুধ কিংবা আমন্ডের দুধ খেতে পারেন।