চিকিত্সকদের নিরাপত্তায় নয়া অ্যাপস

চিকিত্‍সকদের নিরাপত্তায় নয়া অ্যাপস । কোনও চিকিত্‍সক কোনও বিপদে পড়লে SMS পৌছে যাবে প্রায় ১৫ হাজার চিকিত্‍সকের কাছে। পশ্চিমবঙ্গ ডক্টরস ফোরামের অন্তর্ভুক্ত ১৫ হাজার চিকিত্‍সক। তাদের সবার স্মার্ট ফোনেই পৌছে যাবে বিপদ বার্তা। বিপদবার্তা পৌছে যাবে কলকাতা পুলিসের সদর দফতর লালবাজার ও ভবানীভবনেও। SOS পৌছে যাবে ডক্টরস ফোরামের লিগাল সেলের কাছেও।  আজই উদ্বোধন হচ্ছে এই নয়া অ্যাপসের।

Updated By: Jul 9, 2017, 08:57 PM IST
চিকিত্সকদের নিরাপত্তায় নয়া অ্যাপস

ওয়েব ডেস্ক: চিকিত্‍সকদের নিরাপত্তায় নয়া অ্যাপস । কোনও চিকিত্‍সক কোনও বিপদে পড়লে SMS পৌছে যাবে প্রায় ১৫ হাজার চিকিত্‍সকের কাছে। পশ্চিমবঙ্গ ডক্টরস ফোরামের অন্তর্ভুক্ত ১৫ হাজার চিকিত্‍সক। তাদের সবার স্মার্ট ফোনেই পৌছে যাবে বিপদ বার্তা। বিপদবার্তা পৌছে যাবে কলকাতা পুলিসের সদর দফতর লালবাজার ও ভবানীভবনেও। SOS পৌছে যাবে ডক্টরস ফোরামের লিগাল সেলের কাছেও।  আজই উদ্বোধন হচ্ছে এই নয়া অ্যাপসের।

অন্যদিকে, জিএসটি চালু হওয়ার পর বেশ অসুবিধায় পড়েছেন বর্ধমানের ওষুধ দোকানের মালিকরা। একই রকম অসুবিধায় ক্রেতারাও। জিএসটি-র ফলে অমিল বহু জীবনদায়ী ওষুধ। জিএসটি চালু। কিন্তু ধন্দ কাটেনি এখনও। আর এই ধন্দের জের পড়েছে ওষুধের দোকানে। বর্ধমানের অধিকাংশ রিটেল শপে অমিল বিভিন্ন জীবনদায়ী ওষুধ। দোকানের মালিক থেকে কর্মী, তাঁরা বলছেন, অর্ডার দিয়ে ওষুধ মিলছে না। খালি হাতে ফেরাতে হচ্ছে ক্রেতাদের। সবচেয়ে বেশি সমস্যা হচ্ছে প্রেসার ও সুগারের ওষুধে। তবে সবাই আশাবাদী কয়েকদিনের মধ্যেই সমস্যার সমাধান হবে।

এবার পুলিস হেফাজতে বারবার বয়ান বদলের অভিযোগ উঠল অভিনেতা বিক্রমের বিরুদ্ধে