Bangladesh: 'শকুনের রাজনীতি করছে BJP', দাবি কুণালের

সোমবারও তৃণমূলের নেতারা BJP-র বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন এবং জানিয়েছেন তৃণমূলের প্রথম সারির নেতারা জানিয়েছেন যে BJP বিষয়টিকে নিয়ে এই রাজ্যে রাজনীতি করছে।

Updated By: Oct 19, 2021, 05:36 PM IST
Bangladesh: 'শকুনের রাজনীতি করছে BJP', দাবি কুণালের

নিজস্ব প্রতিবেদন: বাংলাদেশ (Bangladesh) নিয়ে নীরব কেন নরেন্দ্র মোদি? বাংলাদেশের ইস্যুতে কেন নিষ্ক্রিয় ভারত এই নিয়ে প্রশ্ন তুলল তৃণমূল কংগ্রেস (TMC)। 

বাংলাদেশ (Bangladesh) প্রসঙ্গে নরেন্দ্র মোদিকে (Narendra Modi) তীব্র কটাক্ষ করে তৃণমূলের (TMC) মুখপত্র জাগোবাংলায় লেখা হয়েছে, ভোটের আগে যেখানে গিয়ে প্রচার সারলেন, এখন তিনি সেই বাংলাদেশ (Bangladesh) নিয়ে নীরব কেন? জাগোবাংলার সম্পাদকীয়তে BJP-কে তীব্র কটাক্ষ করে লেখা হয়েছে বাংলাদেশের (Bangladesh) ঘটনা নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করছে BJP।

সোমবারও তৃণমূলের (TMC) নেতারা BJP-র বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন এবং জানিয়েছেন তৃণমূলের (TMC) প্রথম সারির নেতারা জানিয়েছেন যে BJP বিষয়টিকে নিয়ে এই রাজ্যে রাজনীতি করছে। মঙ্গলবারের জাগোবাংলার সম্পাদকীয়তে মূল নিশানা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। ভোটের আগে বাংলাদেশে (Bangladesh) গিয়ে প্রচার করলেও কেন তিনি বাংলাদেশের (Bangladesh) বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে নিষ্ক্রিয় সেই নিয়েই BJP-কে তোপ দেগেছে তৃণমূল (TMC)।  

jago bangla

তৃণমূল (TMC) নেতা কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh) বলেছেন, "এটি একটি স্পর্শকাতর বিষয় এবং আমরা কোনো রকম দায়িত্বজ্ঞানহীন কাজ করতে অথবা বিবৃতি দিতে চাইনা। কিন্তু বাংলাদেশে (Bangladesh) যেটা ঘটেছে তা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। কিন্তু সবথেকে আশার কথা বাংলাদেশ (Bangladesh) সরকার এবং বাংলাদেশের সর্বস্তরের মানুষ কিন্তু সম্প্রীতির লক্ষে অশুভ শক্তির বিরোধীতা করছেন। এটা সবার আগে আমাদের স্বীকার করে নেওয়া উচিত এবং আমরা আশাকরি তারা তাদের অভ্যন্তরীণ সমস্যা খুব সুন্দরভাবে সমাধান করে নেবেন। কিন্তু BJP এখানে অত্যন্ত কুৎসিত শকুনের রাজনীতি করছে। শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) বলছেন বাংলাদেশের (Bangladesh) ঘটনায় BJP-র ভোট বাড়বে। তাহলে তো এবার খোঁজ নিতে হয় যে যদি BJP বেনিফিশিয়ারি হয় তাহলে পশ্চিমবঙ্গে হারার পর BJP যখন ডুবছে, তখন উপনির্বাচনের আগে হঠাৎ এইধরণের ঘটনা ঘটল কেন? তাহলে বেনিফিশিয়ারি যারা তাদের কার কি ভূমিকা তা নিয়েও তদন্ত হওয়া উচিত। বিধানসভা ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) একটি অংশের ভোট পাওয়ার জন্য বাংলাদেশের (Bangladesh) মন্দিরে চলে গেলেন পুজো দিতে। কিন্তু এখন তো তার কোনো কথা নেই। এটা তো দুই দেশের ব্যাপার কোনো রাজ্যের ব্যাপার নয়। তাহলে BJP এই শকুনের রাজনীতি করছে কেন? আমি বাংলাদেশের (Bangladesh) সরকার এবং সেই দেশের প্রগতিশীল, পরধর্মসহিষ্ণু মানুষ শান্তি ফেরাতে যেভাবে পথে নেমেছেন তাকে নমস্কার জানাই।"

আরও পড়ুন: Bangladesh Violence : পুলিস প্রধানদের বদলি, কড়া পদক্ষেপ সরকারের

BJP নেতা জয়প্রকাশ মজুমদার জানিয়েছেন, "প্রথমত বাংলাদেশে (Bangladesh) জেহাদি সংগঠনের দ্বারা সংখ্যালঘু হিন্দুদের উপর পৈশাচিক আক্রমণের আমরা তীব্র নিন্দা এবং ধিক্কার জানাচ্ছি। একই সঙ্গে নিন্দা করছি জাগোবাংলা এবং কুনাল বাবুদের মতন মেকি রাজনীতি যারা করছেন এবং আসলে হিন্দু বিরোধী রাজনীতি করছেন, তাদেরও। তাদের কাছে আমার প্রশ্ন প্রধানমন্ত্রী গিয়েছিলেন কি কারণে সেটাও ভালো করে জানেন না। যেটা গত দুবছর ধরে ঠিক হয়েছিল, শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মের ১০০ বছর এবং ভারতের সহায়তায় তৈরী একটি ব্রিজ তার উদ্বোধন ইত্যাদি অনেক কিছু ছিল। এগুল ওনারা জানেননা যে কেন গিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী দুদেশের সম্পর্কের জন্য। প্রধানমন্ত্রীকে সমালোচনা করার আগে একটু পড়াশুনা করা দরকার, যেটা কুণাল বাবু অথবা তৃণমূলের (TMC) কেউই করেননা। এবার প্রশ্ন হচ্ছে জাগোবাংলায় লিখছেন এই কথা তার সঙ্গে আমার প্রশ্ন ব্রাত্যবাবু বলেছেন যে ওটা নাকি অভ্যন্তরীন ব্যাপার তাই মুখ খুলবনা। আমার প্রশ্ন যখন ভিয়েতনামে (Vietnam) লড়াই হচ্ছিল তখন এইসব প্রগতিশীল নেতারা যে এক্ষুনি কথাটা ব্যবহার করলেন, যারা বলতেন আমার নাম তোমার নাম ভিয়েতনাম (Vietnam) ভিয়েতনাম (Vietnam), এই ভিয়েতনাম অভ্যন্তরীণ ব্যাপার ছিল না আর বাংলাদেশের (Bangladesh) হিন্দুদের উপর আক্রমণ অভ্যন্তরীণ ব্যাপার।"

(Zee 24 Ghanta App দেশ, দুনিয়া, রাজ্য, কলকাতা, বিনোদন, খেলা, লাইফস্টাইল স্বাস্থ্য, প্রযুক্তির লেটেস্ট খবর পড়তে ডাউনলোড করুন Zee 24 Ghanta App)