সীমান্তে সন্ত্রাসের জবাব ভারতীয় সেনার, সীমান্ত পেরিয়ে পাক সেনার সদর দপ্তরে হামলা

গত ২৩ অক্টোবর জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে ভারতীয় সেনা শিবিরে আক্রমণ চালায় পাকিস্তান।

Updated By: Oct 30, 2018, 10:57 AM IST
সীমান্তে সন্ত্রাসের জবাব ভারতীয় সেনার, সীমান্ত পেরিয়ে পাক সেনার সদর দপ্তরে হামলা

নিজস্ব প্রতিবেদন :  কাশ্মীরের পুঞ্চ এবং ঝাল্লা সীমান্তে সাম্প্রতিক মর্টার হামলার জবাব দিতে ফের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ভারতীয় সেনাবাহিনীর। এবার নিয়ন্ত্রণরেখা পার করে পাক সেনার প্রশাসনিক সদর দপ্তরে আক্রমণ চালাল ভারত। পাক অধিকৃত কাশ্মীরের খুইরাট্টা ও সামানি এলাকাকেই নিশানা করে ভারত।

সেনা সূত্রে খবর, গত ২৩ অক্টোবর জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চ সেক্টরে ভারতীয় সেনা শিবিরে আক্রমণ চালায় পাকিস্তান। সেনা আধিকারিকরা জানান, গত ২৩ অক্টোবর পুঞ্চ ও ঝাল্লায় পাক সেনার বিক্ষিপ্ত গুলি বর্ষণের জবাবে পাক সেনার প্রশাসনিক ঘাঁটি লক্ষ্য করে আঘাত হানা হয়েছে। কোনও রকম প্ররোচনা ছাড়াই দিনের পর দিন পাকিস্তানের তরফে লাগাতার হামলা চালালেও সংযত থেকেছে ভারত। সূত্রের খবর, ২৩ অক্টোবরের হানার প্রতিবাদেই এই হামলা ভারতীয় সেনার।

আরও পড়ুন - স্বস্তিতে আস্থানা, ১ নভেম্বর পর্যন্ত গ্রেফতারি পরোয়ানার স্থগিতাদেশ বহাল রাখল আদালত

কিন্তু ২০১৬ সালের সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের পরে নিয়ন্ত্রণরেখা পেরিয়ে পাক সেনাবাহিনীর ওপর চাপ রাখতে সক্ষম হয়েছে ভারত।এই হামলায় পাক সেনার হেড কোয়ার্টারের একটা বড় অংশ ভেঙে পড়েছে বলে দাবি করেছে ভারতীয় সেনা। সেনা সূত্রে খবর, এই হেড কোয়ার্টার লাইন অফ কন্ট্রোল থেকে প্রায় ২০ কিলোমিটার ভেতরে। এমনকী এই হামলার ভিডিও প্রকাশ করা হয়েছে সেনার তরফে। কারণ হিসেবে ভারতীয় সেনার তরফে বলা হয়েছে, এর আগে যখন ভারতীয় সেনা সীমান্ত পেরিয়ে সার্জিক্যাল স্ট্রাইক করেছিল, তখন পাক সেনার তরফে সে কথা অস্বীকার করা হয়েছিল। তাই প্রমান রাখার জন্য এ বার ভিডিও এবং ছবি তুলে রেখেছে ভারতীয় সেনা। যদিও এই হামলায় শুধুমাত্র সেনার হেড কোয়ার্টার ও জঙ্গি প্রশিক্ষণ শিবিরগুলিকেই নিশানা করা হয়েছে।