‘শেষ ওভারে সিঙ্গল না নেওয়ার সিদ্ধান্তই ভুল’

শেষ ওভারের তিন নম্বর ডেলিভারিতে কেন সিঙ্গল নিলেন না দীনেশ কার্তিক? 

Updated: Feb 11, 2019, 05:01 PM IST
‘শেষ ওভারে সিঙ্গল না নেওয়ার সিদ্ধান্তই ভুল’

নিজস্ব প্রতিবেদন: হতে পারতেন হ্যামিল্টনের বাশিওয়ালা! সেই ক্ষমতা ডিকের ছিল। তবে একটা চালের ভুলেই তিনি হয়ে গেলেন ‘খলনায়ক’। একটা ছোট্ট সিদ্ধান্ত, যা গোটা ম্যাচের ছবিটাই হয়ত পাল্টে দিত পারত, সেই সিদ্ধান্ত নিয়েই সমালোচিত হচ্ছেন দীনেশ কার্তিক। আর সেটা হলে হ্যাডলির দেশে টি-টোয়েন্টি সিরিজ না জেতার আক্ষেপ নিয়ে বাড়ি ফিরতে হত না ভারতীয় দলকে। শেষ ওভারের তিন নম্বর ডেলিভারিতে কেন সিঙ্গল নিলেন না দীনেশ কার্তিক? হ্যামিলটনে হারের পর এই প্রশ্নটাই বারে বারে উঠেছে। এবার দীনেশের সেই সিঙ্গল না নেওয়ার সিদ্ধান্তের সমালোচনা করলেন সঞ্জয় মঞ্জেরকরও।

আরও পড়ুন- বিরাট কোহলি সেরা নেতা, কিন্তু কৌশলী অধিনায়ক নন মত শেন ওয়ার্নের

টুইটে এই প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার লিখেছেন, “ডিকে দারুণ খেলেছে, তবে কুড়ির ফরম্যাটে যে কোনও ছোট সিদ্ধান্তই খুব বড় আকার নিতে পারে। শেষ ওভারে সিঙ্গল না নেওয়া ওর ভুল।”

আরও পড়ুন- বিশ্বকাপে বিরাটের দলে ধোনির প্রয়োজন আছে কি? ব্যাখ্যা দিলেন ওয়ার্ন

প্রসঙ্গত, হ্যামিলটনে শেষ ওভারে ভারতের প্রয়োজন ছিল ১৬। অতীতে এমন পরিস্থিতিতে ম্যাচ জিতেয়েছেন ডিকে। নিধহাস ট্রফির কথাই ধরে নিন। শেষ ওভারে দরকার ছিল ১২ রান। সৌম্য সরকারের শেষ বলে ছয় মেরে ম্যাচ ও ট্রফি জিতিয়েছিলেন ডিকে-ই। অপরাজিত ছিলেন ২৯ রানে। খেলেছিলেন ৮ বল। হ্যামিলটনেও সেই ইনিংসের পুনরাবৃত্তি হতে পারত। তবে তা হয়নি। ১৬ ডেলিভারিতে ৪টি ওভার বাউন্ডারিও হাঁকিয়ে ফেলেছিলেন। স্ট্রাইক রেট ছিল দুশোর ওপর।  ফিনিশার ডিকে শেষ পর্যন্ত ৩৩ রানে অপরাজিত থাকলেন বটে, তবে ম্যাচ ভারতের পকেটে এল না। ওদিকে ক্রুণালেরও ব্যাটে বলে হচ্ছিল।বাঁ হাতি এই ব্যাটসম্যান শেষ পর্যন্ত ২০০ স্ট্রাইক রেট নিয়ে ২৬ রানে অপরাজিত ছিলেন। আর ভারতকে থামতে হল ২০৮ রানেই। যার ফলে ম্যাচ ও সিরিজ দুইই হাতছাড়া হয় ভারতের।