পুলিস অফিসারদের সরিয়ে কোনও লাভ হবে না, মন্তব্য ক্ষুব্ধ তৃণমূল নেত্রীর

পুলিস অফিসারদের সরিয়ে কোনও লাভ হবে না। কমিশনের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কমিশনের নির্দেশে একমাসের মধ্যেই দুবার বদল করা হল বোলপুর আর ময়ূরেশ্বর থানার ওসিকে। আর এতেই নতুন করে ভোটবাজারে শিরোনামে বীরভূম।

Updated By: Apr 15, 2016, 06:49 PM IST
পুলিস অফিসারদের সরিয়ে কোনও লাভ হবে না, মন্তব্য ক্ষুব্ধ তৃণমূল নেত্রীর

ওয়েব ডেস্ক: পুলিস অফিসারদের সরিয়ে কোনও লাভ হবে না। কমিশনের সিদ্ধান্তের সমালোচনা করে বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কমিশনের নির্দেশে একমাসের মধ্যেই দুবার বদল করা হল বোলপুর আর ময়ূরেশ্বর থানার ওসিকে। আর এতেই নতুন করে ভোটবাজারে শিরোনামে বীরভূম।

প্রথম দু-দফায় রাজ্য পুলিসের ভূমিকা নিয়ে জমা পড়েছিল একাধিক অভিযোগ। বেশিটাই ছিল পক্ষপাতিত্বের।  শহরে এসে কমিশনের ফুল বেঞ্চ আর সময় নষ্ট করেনি। ভোটের দুদিন আগে বীরভূম নিয়ে কড়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে কমিশন। বীরভূমের এসপির পদ থেকে সরানো হয়েছে মুকেশ কুমারকে। অপসারণ করা হয়েছে বোলপুর থানার ওসি জহরজ্যোতি রাই, লাভপুর থানার ওসি দেবাশিস ঘোষ ও ময়ূরেশ্বর থানার ওসি সঞ্জয় শ্রীবাস্তবকে। আর কমিশনের এই ফরমানে ক্ষুব্ধ তৃণমূল নেত্রী।

একমাস আগেই রাজ্যে এসেছিল কমিশন। সেইসময়ই বোলপুর ও ময়ূরেশ্বরের ওসি-কে বদল করা হয়। নতুন ওসি হিসাবে ওই দুই থানার দায়িত্বে আসেন জহরজ্যোতি রাই ও সঞ্জয় শ্রীবাস্তব। একমাসের মধ্যেই এই দুই ওসিকে ফের বদল করতে বলল কমিশন। অফিসার বদলের কমিশনের সিদ্ধান্তকে তোপ দেগেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিকে, তাঁর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থার কথা জেনে চব্বিশ ঘণ্টাও চুপ থাকতে পারলেন না অনুব্রত মণ্ডল। সবমিলিয়ে ভোট ময়দানে এখন রীতিমতো ফোকাসে বীরভূম।