আমফানের ধাক্কা-করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা, ২৬ মে পর্যন্ত শ্রমিক ট্রেন বন্ধ রাখার আর্জি জানাল রাজ্য

পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে করোনা উপসর্গ থাকার খবর মিলছে বিভিন্ন জেলা থেকে

Reported By: শ্রেয়সী গঙ্গোপাধ্যায় | Edited By: সোমনাথ মিত্র | Updated By: May 23, 2020, 12:44 PM IST
আমফানের ধাক্কা-করোনা সংক্রমণের সম্ভাবনা, ২৬ মে পর্যন্ত শ্রমিক ট্রেন বন্ধ রাখার আর্জি জানাল রাজ্য

নিজস্ব প্রতিবেদন: একদিকে আমফানে লণ্ডভণ্ড রাজ্যের বড় অংশ। অন্যদিকে পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরার দরুন করোনা সংক্রমণের বৃদ্ধির সম্ভাবনা। এই দুই পরিস্থিতি একসঙ্গে সামাল দিতে কার্যত নাজেহাল রাজ্য সরকার। এই পরিপ্রেক্ষিতে রেলকে চিঠি দিয়ে শ্রমিক ট্রেন রাজ্যে ঢোকা সাময়িক বন্ধ রাখার আর্জি জানালেন রাজ্যের মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।

আরও পড়ুন-আমফানের তাণ্ডব: ৪ দিন ধরে বিদ্যুৎ নেই-জল নেই চাঁপদানিতে, বিক্ষোভ অসহায় বাসিন্দাদের

কয়েক সপ্তাহ ধরে শ্রমিক ট্রেনে ঘরে ফিরছেন এ রাজ্যের পরিযায়ী শ্রমিকরা। কড়া পর্যবেক্ষণে তাঁদের ঘরে ফেরানো হচ্ছে। পরিযায়ী শ্রমিকদের মধ্যে করোনা উপসর্গ থাকার খবর মিলছে বিভিন্ন জেলা থেকে। কোয়ারান্টিনে রেখে চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হচ্ছে তাঁদের। গত বুধবার ভয়াবহ আমফান বয়ে যাওয়ায় বিধ্বস্ত পশ্চিমবঙ্গের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। উদ্ধার ও ত্রাণ কার্যে ব্যস্ত সংশ্লিষ্ট জেলা প্রশাসন। এই সময় শ্রমিক ট্রেনে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরানোর ব্যবস্থা করা অসম্ভব বলে জানিয়েছেন মুখ্যসচিব। আগামী ২৬ মে পর্যন্ত রাজ্যে শ্রমিক ট্রেন না চালানোর আর্জি করেন তিনি।

আরও পড়ুন-এইমসে করোনায় মৃত এক মেসকর্মী; দেশে কোভিডে মৃত্যুর হার অনেকটাই কমছে, দাবি কেন্দ্রের

উল্লেখ্য, পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফিরিয়ে আনতে রেলের পাশাপাশি তত্পর হয় রাজ্য সরকারও। একশোর বেশি ট্রেন চালানোর অনুমতি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সড়ক পথেও নিয়ে আসা হচ্ছে শ্রমিকদের।

এদিকে, গতকাল দেওয়া রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী রাজ্যে শুক্রবার সক্রিয় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৩৫। এদিন প্রর্যন্ত করোনা আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৩,৩৩২। এখনও পর্যন্ত মৃত্যুর সংখ্যা ১৯৩। ফলে খানিকটা সতর্ক থাকতে চাইছে রাজ্য সরকার।